আন্তর্জাতিক

পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশি জঙ্গির ২৯ বছর কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার খাগড়াগড়ে এক বিস্ফোরণ মামলায় নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য কাওসার ওরফে বোমারু মিজানকে ২৯ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। খবর হিন্দুস্থান টাইমস।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) কলকাতার জেলা ও দায়রা আদালতে গঠিত জাতীয় তদন্ত সংস্থার (এনআইএ) বিশেষ আদালত এ রায় দেন।

খাগড়াগড় বিস্ফোরণের মামলায় দণ্ডিত আসামিদের মধ্যে কাওসার ওরফে বোমারু মিজানকেই সর্বোচ্চ সাজা দেওয়া হলো। এর আগে এ মামলায় অভিযুক্ত মোট ৩৪ জনের মধ্যে ৩২ জন আদালতে দোষ স্বীকার করে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ডিত হয়। দণ্ডিত আসামিদের মধ্যে দুজন নারীও রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ বলছে, এ পর্যন্ত দণ্ডিত আসামিদের পাঁচজন জেএমবির সদস্য। এর মধ্যে কাওসারের বাড়ি বাংলাদেশের খুলনায়। তিনি আদালতে দোষ স্বীকার করেননি। এ মামলায় আরেক আসামি সালাউদ্দিন সালেহিন পলাতক রয়েছেন। আর বোমারু মিজান পশ্চিমবঙ্গের কারাগারে বন্দি।

এনআইএ বলছে, সালাউদ্দিন ধরা পড়লে সম্পূরক অভিযোগপত্র দাখিল করে তার বিচার করা হবে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ১৫ সেপ্টেম্বর এই মামলার অভিযুক্ত আরও দুই জঙ্গি আদালতে দোষ স্বীকার করেন। তাদের প্রত্যেককে সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার রুপি করে জরিমানা করেন। অনাদায়ে আরও পাঁচ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন। ৮ সেপ্টেম্বর একই আদালত আরও চার জেএমবি জঙ্গিকে সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ ও পাঁচ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে আরও পাঁচ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন। দণ্ডাদেশ পাওয়া ওই চার জেএমবি জঙ্গি হলেন মোহাম্মদ ইউনিস, মতিউর রহমান, জিয়াউল হক ও জহিরুল শেখ।

সারাবাংলা/একেএম


Source link

আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button