অর্থ-বাণিজ্য

নেপাল থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির প্রক্রিয়া চূড়ান্ত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভারতের মাধ্যমে নেপাল থেকে বছরে ৫০০ মেগাওয়াট জলবিদ্যুৎ আমদানির প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। পাশাপাশি ভুটান থেকে বিদ্যুৎ আমদানিতে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের ব্যুরো অব এনার্জি রিসোর্স ও ডিলরেট এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘ক্রস বর্ডার পাওয়ার ট্রেডিং’ শীর্ষক কর্মশালার ভার্চুয়াল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ সব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আঞ্চলিক ও উপ-আঞ্চলিক বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সহযোগিতাকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়। এরইমধ্যে ভারত থেকে ১১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করতে হচ্ছে। বাংলাদেশের পাওয়ার সিস্টেম মাস্টার প্ল্যানেও ক্রস বর্ডার ট্রেড এর মাধ্যমে ১৫% বিদ্যুৎ অর্থাৎ ২০৪১ সালের মধ্যে ৯০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির নির্দেশনা রয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

নসরুল হামিদ আরও বলেন, ‘বিদ্যুৎ সরবরাহের সুষম বণ্টন নিশ্চিত করতে আঞ্চলিক সহযোগিতা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। ক্রস বর্ডার পাওয়ার ট্রেড পরিবেশ সংরক্ষণ করবে এবং আর্থিকভাবেও সাশ্রয়ী।’

ভার্চুয়াল এ অনুষ্ঠানে অন্যদের সঙ্গে বিদ্যুৎ সচিব মো. হাবিবুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশস্থ দূতাবাসের মিশন উপপ্রধান মিজ জুঅ্যান ওয়াগনার ( Ms.JoAnne Wagner) ও পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেন সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, নেপালের আপার কার্নালি হাইড্রো পাওয়ার প্রজেক্ট থেকে ভারতের মাধ্যমে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনবে সরকার। এ জন্য ২৫ বছরে ৩৮ হাজার ১৬০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয় হবে।

সারাবাংলা/জেআর/একে


Source link

আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button