খেলা

৫ম দিনে ভ্যাকসিন নিলেন দুই লক্ষাধিক, এ পর্যন্ত ৫ লাখের বেশি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশে জাতীয়ভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগের পঞ্চম দিনে দুই লাখ চার হাজার ৫৪০ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে রাজধানীতে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২৪ হাজার ৪৫৩ জন।

বিজ্ঞাপন

এখন পর্যন্ত দেশে সর্বমোট ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন পাঁচ লাখ ৪২ হাজার ৩০৯ জন। ভ্যাকসিন প্রয়োগ পরবর্তী সময়ে ৩৬৩ জনের মাঝে হালকা জ্বর, গায়ে ব্যথা এমন লক্ষণ দেখা গেলেও এখনও পর্যন্ত সবাই সুস্থ আছেন।

বৃহস্পতিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার ৪৭টিসহ সারাদেশে এক হাজার পাঁচটি কেন্দ্রে ভ্যাকসিন নিয়েছে দুই লাখ চার হাজার ৫৪০ জন। জনসাধারণ পর্যায়ে ভ্যাকসিন প্রয়োগের প্রথম দিন ৩১ হাজার ১৬০ জন ও দ্বিতীয় দিন ৪৬ হাজার ৫০৯ জন ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন। তৃতীয় দিনে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন এক লাখ এক হাজার ৮২ জন। চতুর্থ দিনে দেশে এক লাখ ৫৮ হাজার ৪৫১ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রথম দিন ২১ জনের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলেও দ্বিতীয় দিন দেখা দেয় ৭১ জনের মধ্যে। তৃতীয় দিন ৯৪ জন এবং চতুর্থ দিন দেখা দিয়েছে ৭০ জনের শরীরে। পঞ্চম দিনে দেশে ৭৬ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৩৬৩ জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান সারাবাংলাকে বলেন, যেকোনো ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে মানুষের ভ্যাকসিন নেওয়ার স্থানে লাল হতে পারে। সামান্য জ্বর আসতে পারে এবং কিছু ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন নেওয়ার স্থানসহ শরীরে ব্যথা হতে পারে। ২৭৭ জনের ক্ষেত্রে এমনই হয়েছে। এখনো পর্যন্ত কারোর মাঝেই এর চাইতে গুরুতর কিছু দেখা যায় নাই। আর তাই আমরা বলতে পারি সবাই সুস্থ আছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে ভ্যাকসিন নিয়েছে ২৪ হাজার ৪৫৩ জন। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৪২৪ জন পুরুষ ও আট হাজার ২৯ জন নারী ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। রাজধানীতে এখন পর্যন্ত ৬৮ হাজার ৯০১ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে ৪৭ হাজার ২০৪ জন পুরুষ ও ২১ হাজার ৬৯৭ জন নারী।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা জেলায় এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন ছয় হাজার ৮৮৭ জন। এর মধ্যে চার হাজার ৮৪৫ জন পুরুষ ও দুই হাজার ৪২ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন তিন হাজার ১৩৯ জন। এর মধ্যে দুই হাজার ১৫৮ জন পুরুষ ও ৯৮১ জন নারী ভ্যাকসিন পেয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৫১ হাজার ১৫৯ জন। এর মধ্যে ৩৪ হাজার ৪৪৬ জন পুরুষ ও ১৬ হাজার ৭১৩ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৯ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। ভ্যাকসিন গ্রহণ করার পরে এই বিভাগে ৬১ জনের মাঝে ভ্যাকসিন নেওয়া পরবর্তী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তবে সবাই সুস্থ আছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ বিভাগে ৯ হাজার ৩৩৭ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার ৮২৮ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন যার মধ্যে পুরুষ ১৮ হাজার ৭০৫ জন ও নারী সাত হাজার ১২৩ জন। এই বিভাগে ২৪ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও সবাই এখন সুস্থ আছেন।

চট্টগ্রাম বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ৩০ হাজার ৭৯৪ জন যার মাঝে ৯৩ হাজার ৮৫৭ জন পুরুষ ও ৩৬ হাজার ৯৩৭ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় এই বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছে ৫২ হাজার ৮৬৯ জন। এখন পর্যন্ত এই বিভাগে ১০৬ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও সবাই এখন সুস্থ আছেন।

রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২৩ হাজার ১৮০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫ হাজার ৭৩৬ জন ও নারী সাত হাজার ৪৪৪ জন। এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪০ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া।

খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩ হাজার ৪৭৯ জনকে ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৩৮৪ জন পুরুষ, নারী সাত হাজার ৯৫ জন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ৫৩ জনের মধ্যে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া।

বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে ৯ হাজার ৩৯৭ জনকে। এর মধ্যে পুরুষ ছয় হাজার ৪৬৩, নারী দুই হাজার ৯৩৪। এই বিভাগে পাঁচ জনের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে ১৫ হাজার ৭৩৯ জনকে। এর মধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ২৫৬, নারী পাঁচ হাজার ৪৮৩। এদের মধ্যে সাত জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৯ হাজার ৩৮০ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ৫৬৮ ও নারী পাঁচ হাজার ৮১২ জন। এই বিভাগে ৯ জনের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে।

সারাবাংলা/এসবি/

সারাবাংলা/এসবি


Source link

আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button