আইন-বিচার

বিএনপির ২৯ নেতাকর্মী রিমান্ডে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ‘গোলযোগ সৃষ্টি ও পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া’র অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির ২৯ নেতাকর্মীকে দুই দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের প্রস্তাবের প্রতিবাদে বিএনপির ডাকা সমাবেশ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) শাহবাগ থানার মামলায় ১৬ আসামিকে ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম হোসেন খান। রমনা থানার মামলায় ১৩ আসামির সাত দিন করে রিমান্ড চান এসআই সহিদুল ওসমান মাসুম।

শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- শরিফ উদ্দিন ওরফে জুয়েল, ওবায়দুল্লাহ নাঈম, নাদিম হোসেন, আব্দুর রশিদ, হোসেন মিয়া, আলামিন মোল্লা, মিল্টন শেখ, সানোয়ার, জহির, রুবেল, এবাদুল, হামিদুল ইসলাম, মহসিন, জাকির হোসেন, পারভেজ রেজা, খন্দকার মুজাহিদুল ইসলাম, সওগাতুল ইসলাম, মিনহাজুল হক নয়ন, শওকত উল ইসলাম, সজীব, শামীম রেজা, শাওন জমাদ্দার, ইমন শেখ, নজরুল ইসলাম, সাজ্জাদ, রহমান রানা, মোস্তফা, মাহমুদুল হাসান ওরফে মাকসুদুল হাসান ও পলাশ মিয়া।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিদের মধ্যে প্রথম ১৩ জন রমনা থানার এক মামলার এবং পরের ১৬ জন শাহবাগ থানার আরেক মামলার আসামি।

বিজ্ঞাপন

এসময় আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন।

গত শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের প্রস্তাবের প্রতিবাদে সমাবেশ ডাকে বিএনপি। ওদিন প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের বাগবিতন্ডা ও সংর্ঘ হয়। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে পৃথকভাবে কয়েকটি মামলা দায়ের করে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/এমও


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button