স্বাস্থ্য

৮ম দিনে ভ্যাকসিন নিলেন ২ লাখের বেশি, গ্রহীতা ছাড়াল ১১ লাখ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: এখন পর্যন্ত দেশে সর্বমোট ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন ১১ লাখ ৩২ হাজার ৭১১ জন। ভ্যাকসিন প্রয়োগ পরবর্তী সময়ে ৪৫৫ জনের মাঝে হালকা জ্বর, গায়ে ব্যথা এমন লক্ষণ দেখা গেলেও এখনও পর্যন্ত সবাই সুস্থ আছেন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান সারাবাংলাকে বলেন, ‘যেকোনো ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে মানুষের ভ্যাকসিন নেওয়ার স্থান লাল হতে পারে, সামান্য জ্বর আসতে পারে এবং কিছু ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন নেওয়ার স্থানসহ শরীরে ব্যথা হতে পারে। এখন পর্যন্ত কারোর মাঝেই এর চেয়ে গুরুতর কিছু দেখা যায়নি।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে ভ্যাকসিন নিয়েছে ২৯ হাজার ৫৫ জন। এর মধ্যে ১৯ হাজার ৭১৪ জন পুরুষ ও ৯ হাজার ৩৪১ জন নারী। রাজধানীতে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৪৭ হাজার ৫০২ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে এক লাখ ৪৭৬ জন পুরুষ ও ৪৭ হাজার ২৬ জন নারী।

ঢাকা জেলায় এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছে ১৬ হাজার ৮৮৯ জন। এর মধ্যে ১১ হাজার ৫০৪ জন পুরুষ ও পাঁচ হাজার ৩৮৫ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন চার হাজার ৫৩০ জন। এর মধ্যে তিন হাজার ৫০ জন পুরুষ ও এক হাজার ৪৮০ জন নারী ভ্যাকসিন পেয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৬২ হাজার ৭৩৩ জন। এর মধ্যে ৪২ হাজার ১১৪ জন পুরুষ ও ২০ হাজার ৬১৯ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত তিন লাখ দুই হাজার ৭০৫ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। ভ্যাকসিন গ্রহণ করার পরে এই বিভাগে ৯৮ জনের মাঝে ভ্যাকসিন নেওয়া পরবর্তী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তবে সবাই সুস্থ আছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ বিভাগে ৯ হাজার ৪৫৫ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ৫০ হাজার ৭৩০ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন যার মধ্যে পুরুষ ৩৪ হাজার ৪১৫ জন ও নারী ১৬ হাজার ৩১৫ জন। এই বিভাগে ২৬ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও সবাই এখন সুস্থ আছেন।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন দুই লাখ ৭০ হাজার ৯৫৯ জন যার মাঝে এক লাখ ৮৬ হাজার ১৩৪ জন পুরুষ ও ৮৪ হাজার ৮২৫ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় এই বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছে ৫২ হাজার ৭৪৪ জন। এখন পর্যন্ত এই বিভাগে ১১৮ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও সবাই এখন সুস্থ আছেন।

রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২৪ হাজার ৬০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫ হাজার ২৪৭ জন ও নারী আট হাজার ৮১৩ জন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ২৮ হাজার ৭৬৩ জন। এর মধ্যে ৮৮ হাজার ৭৬ জন পুরুষ ও ৪০ হাজার ৬৮৭ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ৪৫ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তবে সবাই সুস্থ আছে এখন পর্যন্ত।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২১ হাজার ৬১৮ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ৫৭৩ জন ও নারী আট হাজার ৪৫ জন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ছয় হাজার ৬৩৪ জন। এর মধ্যে ৭৩ হাজার ৪৯৩ জন পুরুষ ও ৩৩ হাজার ১৪১ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ৫৯ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তবে সবাই সুস্থ আছে এখন পর্যন্ত।

খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ হাজার ৭১০ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৭ হাজার ৮৬৬ জন পুরুষ, নারী ৯ হাজার ৮৪৪ জন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ২৮ হাজার ১৫৯ জন। এর মধ্যে ৮৮ হাজার ৯১ জন পুরুষ ও ৪০ হাজার ৬৮ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ৬৭ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তবে সবাই সুস্থ আছে এখন পর্যন্ত।

বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ১২ হাজার ১৩১ জনকে। এর মধ্যে পুরুষ ৮ হাজার ১৮৬, নারী তিন হাজার ৯৪৫। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৫১ হাজার ৫২৩ জন। এর মধ্যে ৩৫ হাজার ৮২২ জন পুরুষ ও ১৫ হাজার ৭০১ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ২১ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তবে সবাই সুস্থ আছে এখন পর্যন্ত।

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ১৬ হাজার ২২৭ জনকে। এর মধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ৫১, নারী ছয় হাজার ১৭৬ জন। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৯৩ হাজার ২৩৮ জন। এর মধ্যে ৬১ হাজার ২৭৪ জন পুরুষ ও ৩১ হাজার ৯৬৪ জন নারী। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত ২১ জনের শরীরে দেখা দিয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তবে সবাই সুস্থ আছে এখন পর্যন্ত।

উল্লেখ্য, জনসাধারণ পর্যায়ে ভ্যাকসিন প্রয়োগের প্রথম দিন ৩১ হাজার ১৬০ জন ও দ্বিতীয় দিন ৪৬ হাজার ৫০৯ জন ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন। তৃতীয় দিনে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন এক লাখ এক হাজার ৮২ জন। চতুর্থ দিনে দেশে এক লাখ ৫৮ হাজার ৪৫১ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। পঞ্চম ও ষষ্ঠ দিনে ভ্যাকসিন গ্রহণ করে যথাক্রমে দুই লাখ চার হাজার ৫৪০ জন ও এক লাখ ৯৪ হাজার ৩৭১ জন। সপ্তম দিনে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন এক লাখ ৬৯ হাজার ৩৫৩ জন।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রথম দিন ২১ জনের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলেও দ্বিতীয় দিন দেখা দেয় ৭১ জনের মধ্যে। তৃতীয় দিন ৯৪ জন এবং চতুর্থ দিন দেখা দিয়েছে ৭০ জনের শরীরে। পঞ্চম দিনে দেশে ৭৬ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। ষষ্ঠ দিনে ৩১ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। সপ্তম দিনে ১৮ ও অষ্টম দিনে ২১ জনের মাঝে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তবে সবাই সুস্থ আছে।

সারাবাংলা/এসবি


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button