স্বাস্থ্য

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৫ জনের, শনাক্ত ৩৯১

সারাবাংলা ডেস্ক

দেশে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে করোনাভাইরাসে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩৯১ জন, এই সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬৭৮ জন।

বিজ্ঞাপন

এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত ব্যক্তির মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৪২ হাজার ২৬৮ জনে। এর মধ্যে মারা গেছেন ৮ হাজার ৩২৯ জন। আর সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লাখ ৮৯ হাজার ৯৩২ জন।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার সই করা প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ২১৪টি পরীক্ষাগারে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১১৭টি, জিন-এক্সপার্ট ল্যাব ২৯টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাব ৬৮টি। ল্যাবগুলোর মধ্যে সরকারি ল্যাবের সংখ্যা ১৪৬টি, বেসরকারি ল্যাব ৬৮টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৪ হাজার ৭৪২টি। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৪ হাজার ৬০৩টি। এ নিয়ে দেশে ৩৯ লাখ ৮ হাজার ২৫৭টি নমুনা পরীক্ষা হলো। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩০ লাখ ২৬ হাজার ৩৩২টি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮ লাখ ৮১ হাজার ৯২৫টি।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় যেসব নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, তার মধ্যে ৩৯১টি নমুনায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ৫ লাখ ৪২ হাজার ২৬৮ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হলো। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ২ দশমিক ৬৮ শতাংশ। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ১৫ জন করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন, এ নিয়ে মোট ৮ হাজার ৩২৯ জনের মৃত্যু হলো। শনাক্তের বিপরীতে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

বিজ্ঞাপন

একই সময়ে করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬৭৮ জন। এ নিয়ে মোট ৪ লাখ ৮৯ হাজার ৯৩২ জন করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন। সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ১৫ জন করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন, তাদের মধ্যে পুরুষ ১২ জন, নারী তিন জন। মোট মৃত ব্যক্তির মধ্যে ৬ হাজার ৩০৫ জন (৭৫ দশমিক ৭০ শতাংশ) পুরুষ, ২ হাজার ২৪ জন (২৪ দশমিক ৩০ শতাংশ) নারী।

বিজ্ঞাপন

বয়স বিবেচনায় দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ৯ জনের বয়স ষাটোর্ধ্ব, চার জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছর। এছাড়া ৪১ থেকে ৫০ ও ১১ থেকে ২০ বছর বয়সী একজন করে মারা গেছেন। এই ২৪ জনের মধ্যে ১১ জন ঢাকা বিভাগের, চট্টগ্রাম বিভাগের রয়েছেন দু’জন। একজন করে মারা গেছেন রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে। ১৫ জনের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত দেশে মোট ২৮ লাখ ৫ হাজার ১৩৫ জন করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এর মধ্যে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন মোট ১৫ লাখ ৮৬ হাজার ৩৬৮ জন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অনলাইন নিবন্ধন প্রক্রিয়া সফলভাবে চলমান থাকায় ভ্যাকসিন প্রয়োগ কেন্দ্রে স্পট নিবন্ধন বন্ধ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

সারাবাংলা/টিআর


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button