অর্থ-বাণিজ্য

উন্নত সড়ক নেটওয়ার্কে আসছে বিলাইছড়ি

জোসনা জামান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:

ঢাকা: উন্নত সড়ক নেটওয়ার্কের আওতায় আসছে রাঙ্গামাটি জেলার বিলাইছড়ি উপজেলা। এ লক্ষ্যে ‘রাঙ্গামাটি জেলার কারিগরি পাড়া হতে বিলাইছড়ি পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন ও ব্রিজ কালভার্ট নির্মাণ’ শীর্ষক একটি প্রকল্প হাতে নিচ্ছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞাপন

রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই ও বিলাইছড়ি উপজেলায় মোট গ্রামীণ সড়কের পরিমাণ ৯৭৮ দশমিক ৭ কিলোমিটার। এর মধ্যে পাকা সড়ক ৯৪ দশমিক ২৩ কিলোমিটার। অবশিষ্ট কাঁচা সড়কের পরিমাণ ৮৮৩ দশমিক ৮৪ কিলোমিটার। এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে কাঁচা সড়কের ৪৪ দশমিক ৫৬ কিলোমিটার সড়ক পাকা করাসহ ব্রিজ কালভার্ট নির্মাণের মাধ্যমে জরুরি চিকিৎসা এবং সেবা নিশ্চিতকরণ হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৩৮ কোটি ৫৪ লাখ টাকা।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের (জিইডি) সদস্য (সিনিয়র সচিব) ড. শামসুল আলম সারাবাংলাকে বলেন, অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় সারাদেশের সড়ক নেটওয়ার্ক শক্তিশালী করার লক্ষ্য রয়েছে। এ হিসেবে প্রকল্পটি বর্তমান পরিকল্পার সঙ্গে সামঞ্জর্স্যপূর্ণ।

বিজ্ঞাপন

পরিকল্পনা কমিশনের একাধিক কর্মকর্তা সারাবাংলাকে বলেন, প্রকল্পটি প্রস্তাব পাওয়ার পর গত বছরের ২০ নভেম্বর প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় দেওয়া সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) পুর্নগঠন করা হয়েছে। ফলে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) যেকোনো সভায় উপস্থাপন করা হবে। অনুমোদন পেলে চলতি বছর থেকে শুরু হয়ে ২০২৪ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)।

স্থানীয় সরকার সূত্র জানায়, টেকসই অবকাঠামোর অভাব পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের উন্নয়নের পথে প্রধান অন্তরায়। অপর্যাপ্ত সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে কৃষিপণ্য পরিবহণ ও বাজারজাতকরণ অত্যন্ত দুরুহ। যাতায়াত ব্যবস্থা ব্যয়বহুল এবং সহজতর না হওয়ায় অকৃষিখাতে এ এলাকার জনগণের কর্মসংস্থানের সুযোগ সীমিত। এ সকল কারণে বাংলাদেশে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চল অনুন্নত অঞ্চল হিসাবে চিহ্নিত। ফলে টেকসই অবকাঠামো নির্মাণের মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন ও সহজতর যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপনের মাধ্যমে অঞ্চলটির আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন বর্তমানে জরুরি হয়ে পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

পার্বত্য রাঙামাটি জেলার ১০টি উপজেলার মধ্যে তিনটি উপজেলার সঙ্গে রাঙ্গামাটি জেলার সরাসরি যোগাযোগ নেই। পর্যটনের জন্য অত্যন্ত সম্ভাবনাময় বিলাইছড়ি উপজেলা একটি। এ এলাকার জনগণকে জেলার সঙ্গে যোগাযোগের জন্য নৌপথে যাতায়াত করতে হয়। এছাড়া শীতকালে কাপ্তাই লেকের পানি কমে গেলে ৪ থেকে ৫ কিলোমিটার হেঁটে লঞ্চঘাটে পৌঁছাতে হয়। যাতায়াত ব্যবস্থার অপ্রতুলতা ও টেকসই অবকাঠামোর অভাবে বিলাইছড়ি উপজেলার জনগণ শিক্ষা, চিকিৎসা, ব্যবসা-বাণিজ্য সব ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ছে।

প্রকল্পের মূল কার্যক্রম হচ্ছে, ৫০৪ মিটার উপজেলা সড়কে ব্রিজ নির্মাণ, ৩৯৮ মিটার গ্রামীণ সড়কে ১০টি ব্রিজ নির্মাণ, ৪৩ মিটার উপজেলা সড়কে কালভার্ট, ১৭৭ মিটার গ্রামীণ সড়কে কালভার্ট, ৮ দশমিক ৬৮কিলোমিটার উপজেলা সড়ক বিসি দ্বারা উন্নয়ন, ৩৫ দশমিক ৮৮ কিলোমিটার গ্রামীণ সড়ক বিসি দ্বারা উন্নয়ন, ২৫ কিলোমিটার সড়ক প্রতিরক্ষা কাজ, তিনটি যাত্রী ছাউনী এবং ২১ একর ভূমি অধিগ্রহণ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেজে/এএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button