রাজধানী

দুর্বল পিলারে ভবন ধস, আশপাশের ভবনেও ফাটল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দুর্বল পিলার আর নরম কাদা মাটির ওপর নিয়মবহির্ভূতভাবে ভবন নির্মাণ করায় ঢাকার কেরানীগঞ্জের পূর্ব চরাইল এলাকায় তিনতলা ভবনটি ধসে পড়েছে। ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ভবন সংলগ্ন একটি পুকুর থাকা ও নরম কাদা মাটির ওপর দুর্বল কাঠামোর ওপর নির্মাণ করায় ভবনটি ধসে পড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ফায়ার সার্ভিসের উপ পরিচালক (ঢাকা মেট্রো) দেবাশীষ বর্ধন সারাবাংলাকে বলেন, ভবন ধসের ঘটনায় মোট আটজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি কমিটিও গঠন করা হবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- নরম কাদা মাটির ওপর দুর্বল পিলার দিয়ে নির্মাণ করায় ভবনটি উল্টে পাশের পুকুরে পড়ে যায়। এ ঘটনায় আশপাশের তিনটি ভবনেও ফাটল দেখা দিয়েছে। তাই ভবনগুলোর বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, যথাযথ নিয়ম অনুসরণ না করেই ভবনটি পুকুর পাড়ে তৈরি করা হয়েছিল। নরম মাটি ও সরু পিলারের ওপর থাকায় ভবনটি পুকুরের মধ্যে উল্টে পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

কেরানীগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন, ভবন ধসে পড়ার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সাত-আটজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

তিনি বলেন, আমি নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। ভবনটি চারটি সরু পিলারের ওপর তৈরি করা হয়েছিল। জায়গাটিও শক্ত নয়, একেবারে নরম কাদা মাটি। আবার দেয়াল ঘেঁষেই একটি পুকুর। সবমিলিয়ে তিনতলা ভবনটি উল্টে পুকুরে পড়েছে। আস্ত ভবনটি পুকুরে পড়েছে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি এটাই সৌভাগ্য।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এ ঘটনায় আশপাশের আরও কয়েকটি ভবনে ফাটল দেখা দিয়েছে। আমরা ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় ওই ভবনগুলো থেকে লোকজনদের নামিয়ে নিরাপদ স্থানে নিয়েছি। এছাড়াও এ ঘটনায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি কমিটি গঠন করা হবে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বলেন, এ ভবন ধসের ঘটনায় আহত অবস্থায় মোট আটজনকে উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাড়ির মালিক পলাতক রয়েছেন। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইউজে/এনএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button