শিক্ষা

৭ কলেজের পরীক্ষা চলবে

তিতুমীর কলেজ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের চলমান পরীক্ষা পূর্বনির্ধারিত রুটিন অনুযায়ী চলবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে আজ বুধবারের (২৪ ফেব্রুয়ারি) পরীক্ষার সময় পরে জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের এক বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামালও গণমাধ্যমকর্মীদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

অধ্যাপক কামাল বলেন, ঢাবির অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের চলমান পরীক্ষাগুলো অব্যাহত থাকবে। গতকাল (মঙ্গলবার) ও আজকের (বুধবার) পরীক্ষাগুলোর তারিখ পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন-

৭ কলেজের পরীক্ষা চলবে

বিজ্ঞাপন

দেশে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলেও হঠাৎ রুটিন দিয়ে শুরু হয় সাত কলেজের বিভিন্ন সেশনের পরীক্ষা। সাত কলেজের ২০১৬-১৭ সেশনের চলমান সমাপনী পরীক্ষার চারটি বিষয় ও ১৫-১৬ সেশনের মাত্র একটি বিষয় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়া বাকি রয়েছে। এর মধ্যে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, আগামী ১৭ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর হল খুলবে এবং ক্যাম্পাস খুলবে ২৪ মে

শিক্ষামন্ত্রীর এ ঘোষণার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। পরে সাত কলেজ কর্তৃপক্ষও মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) পরীক্ষা স্থগিত করার ঘোষণা দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাত থেকেই সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও আন্দোলন করে আসছেন। তারা আগের রুটিন অনুযায়ীই পরীক্ষা চালিয়ে নেওয়ার দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

বুধবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে রাজধানীর শাহবাগ ও নীলক্ষেত এবং মহাখালী ওয়্যারলেস এলাকায় তিতুমীর কলেজের সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেন। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, বুধবার বিকেলেই বৈঠক করে সাত কলেজের চলমান পরীক্ষা বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে আগেই এই সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এ সভায় আরও যুক্ত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, উপউপাচার্য অধ্যাপক মাকসুদ কামাল এবং সাত কলেজের সমন্বয়কসহ কলেজের অধ্যক্ষরা।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে বুধবার সকাল থেকেই দ্বিতীয় দিনের মতো নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। সকাল ৯টায় নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন তারা। এতে ওই সড়ক ও এর আশপাশের রাস্তায় যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সাত কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত (ফোকাল পয়েন্ট) আই কে সেলিম উল্লাহ ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজের বেশ কয়েকজন শিক্ষক নিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছে যান। তিনি জানান, বৈঠক থেকে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসবে। তবে আই কে সেলিম উল্লাহর আশ্বাসের পরও সড়ক ছাড়তে চাননি শিক্ষার্থীরা। তারা শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে লিখিত আকারে বিজ্ঞপ্তি ও এর সুষ্ঠু সমাধান চেয়েছেন।

সারাবাংলা/টিএস/টিআর


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button