অপরাধ

চলন্ত বাসে ইয়াবা বিক্রি, পুলিশের ফাঁদে ধরা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: নগরীর চৌমুহনী এলাকার নিউ সুপার স্টার হোটেল থেকে চার হাজার ৩০০ পিস ইয়াবাসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে, যাদের একজন পরিবহন শ্রমিক। পুলিশ জানিয়েছে, ইয়াবার ক্রেতা সেজে পুলিশের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে ধরা পড়ে দু’জন। এদের একজন চলন্ত বাসে যাত্রীবেশে ওঠা মাদকসেবীদের কাছেও ইয়াবা বিক্রি করে বলে জানায় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন সারাবাংলাকে জানান,  বুধবার (৪ মার্চ) রাতে পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃতরা হলেন মো. রাসেল (২৪) ও আল আমিন বাবু (২৪)। উভয়ের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলায়।

ওসি মহসীন জানান, দু’জন বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর চৌমুহনীতে ফায়ার সার্ভিসের স্টেশনের সামনে ইয়াবা বিক্রির জন্য অবস্থান করছিল। বিষয়টি জানতে পেরে ডবলমুরিং এসআই শরীফ ক্রেতা সেজে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। দরদামের পর ইয়াবা হস্তান্তরের জন্য তাদের নিউ সুপার স্টার হোটেলের তৃতীয় তলায় ২০৭ নম্বর কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে রাসেলের কাছ থেকে আড়াই হাজার এবং বাবুর কাছ থেকে এক হাজার ৮০০ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওসি মহসীন বলেন, রাসেল চট্টগ্রাম শহরের ১১ নম্বর রুটের বাসের চালকের সহকারি হিসেবে কাজ করে। পাশাপাশি সে ইয়াবাও বিক্রি করে। সাধারণত পরিচিত ক্রেতাদের কাছে সে ইয়াবা ডেলিভারি করে বাসের ভেতর। ইয়াবাসেবীরা যাত্রীবেশে ওঠে। চলন্ত বাসে রাসেল কৌশলে তাদের কাছে ইয়াবা হস্তান্তর করে। রাসেলের পুরো পরিবার মাদক বিক্রির সঙ্গে জড়িত। মা ও বাবা তিনটি করে মাদক মামলার আসামি। বর্তমানে মা কারাগারে আছেন। বাবা পলাতক।

সারাবাংলা/আরডি/একেএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button