খেলা

কিউদের ফর্ম ভুলেও মাথায় আনতে চান না মাহমুদউল্লাহ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঘরের মাঠে যে কোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষেই সাক্ষাৎ জম নিউজিল্যান্ড! সামনে পড়েছে তো, স্রেফ উড়ে গেছে! অতীত তো বটেই বর্তমানেও ব্যাটে-বলের সেই উড়ন্ত ছন্দ অব্যাহত রেখেছে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। এই তো সেদিন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি নিজেদের করে নিয়েছে কেন উইলিয়ামসন ও তার দল। ঠিক একারণেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের সিরিজ সামনে রেখে স্বাগতিকদের এই ফর্ম ভুলেও মাথায় আনতে চাইছেন না, টাইগারদের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বিজ্ঞাপন

কেন চাইছেন না তা খুব সহজেই অনুমেয়। আখেরে তা দলের উপরে চাপ বাড়াবে বৈ কমাবে না। বরং এটা না করে নিজেদের শক্তিমত্তা ও দুর্বলতা নিয়ে কাজ করতেই ঢেঢ় স্বাচ্ছন্দ বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহর।

সোমবার (৮ মার্চ) নিউজিল্যান্ড থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ভিডিও বার্তায় তিনি একথা জানান।

বিজ্ঞাপন

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড দল খুব ভালো ছন্দে আছে। মাত্রই অস্ট্রেলিয়াকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারাল। ওই জিনসগুলো মাথায় না এনে আমাদের শক্তি ও দুর্বলতার দিকগুলোর দিকে তাকালে আমাদের খেলার জন্য ভালো হবে।’

নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে টিম বাংলাদেশকে বারবারই যুঝতে হয়েছে। আর সেই যুদ্ধে প্রতিবারই হার বৈ আর কিছুই নিয়ে দেশে ফিরতে পারেনি লাল সবুজের দল। হাড় হিম করে দেওয়া ঠান্ডা ও হু হু বাতাসের মধ্যে খেলে আজ অবধি তিন ফরম্যাটে ২৬ ম্যাচ খেলে জয়শূন্য থাকতে হয়েছে সফরকারিদের। জয়ের কাজটি এবারও সহজ হবে না বলেই মত মাহমুদউল্লাহর। তবে তিন বিভাগেই দল হিসেবে পারফর্ম করতে পারলে অতীত বিস্মৃতি ঘুচলেও ঘুচতে পারে বলে জানালেন মিস্টার কুল।

বিজ্ঞাপন

‘নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন সব সময় চ্যালেঞ্জিং। আমাদের জন্য সহজ হবে না। দল হিসেবে আমাদের পারফর্ম করতে হবে তিন বিভাগেই। আমি মনে করি যে আমাদের ক্রিকেট খেলার মন মানসিকতা থাকলে ইনশাল্লাহ আমরা ভালো করব। আমি যত দ্রুত সম্ভব উইকেটটা বোঝার চেষ্টা করি। উইকেটের বাউন্সটা মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করি কারণ এ সমস্ত উইকেটে বাউন্সটা বরাবরই থাকে। তো উইকেটে গতিটা কেমন ওটা ধরা দরকার। বেসিক ক্রিকেটটা গুরুত্বপূর্ণ। নিজেদের প্রাথমিক কাজগুলো ঠিকমতো করতে পারলে ফল ভালো হবে।’

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সফরকারি বাংলাদেশের তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে গড়াবে ২০ মার্চ ডুনেডিনে, দ্বিতীয়টি ২৩ মার্চ ক্রাইস্ট চার্চে, তৃতীয় ও শেষটি ২৬ মার্চ ওয়েলিংটনে।

বিজ্ঞাপন

আর টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি গড়াবে ২৮ মার্চ হ্যামিল্টনে। দ্বিতীয়টি ৩০ মার্চ নেপিয়ারে ও তৃতীয়টি ১ এপ্রিল, অকল্যান্ডে।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button