বিনোদন

চলে গেলেন চিত্রনায়ক শাহীন আলম

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপনডেন্ট

বাঁচতে চেয়েছিলেন চিত্রনায়ক শাহীন আলম। চেয়েছিলেন সুস্থ হয়ে পরিবারের মাঝে আবার ফিরবেন। কিন্তু আর ফেরা হলো না। সোমবার (৮ মার্চ) রাত ১০টা ৫ মিনিটে তিনি চলে গিয়েছেন না ফেরা দেশে। সারাবাংলাকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, ফজরের নামাজের পর তার জানাজা নামাজ গুলশান নিকেতন মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। এরপর এই অভিনেতাকে দাফন করা হবে বনানী কবরস্থানে। এছাড়া তার মরদেহ এফডিসিতে নেওয়া হবে কিনা এ ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত পরিবারের সদস্যারা নিবেন।

কিডনি সমস্যা নিয়ে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাহীন আলম। সপ্তাহখানেক ধরে সেখানে ছিলেন তিনি। গত ৬ মার্চ তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তার পরিবারের তরফ থেকে চিকিৎসা হয়তাও চাওয়া হয়। কিন্তু এর আগে চলে গেলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

১৯৮৬ সালে নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান শাহীন আলম। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘মায়ের কান্না’ ১৯৯১ সালে মুক্তি পায়।

শাহীন আলম অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ঘাটের মাঝি, এক পলকে, গরিবের সংসার, তেজী, চাঁদাবাজ, প্রেম প্রতিশোধ, টাইগার, রাগ-অনুরাগ, দাগী সন্তান, বাঘা-বাঘিনী, আলিফ লায়লা, স্বপ্নের নায়ক, আঞ্জুমান, অজানা শত্রু, দেশদ্রোহী, প্রেম দিওয়ানা, আমার মা, পাগলা বাবুল, শক্তির লড়াই, দলপতি, পাপী সন্তান, ঢাকাইয়া মাস্তান, বিগবস, বাবা ও বাঘের বাচ্চা।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button