অপরাধ

পিকে হালদারের বিরুদ্ধে আরও ১০ মামলার অনুমোদন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে হালদার) বিরুদ্ধে আরও ১০ মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) দুর্নীতি দমন কমিশনের সচিব ড. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি জানান, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের এমডি মো. রাশেদুল, ভারপ্রাপ্ত এমডি মো. আবেদ হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এম এ হাশেম এবং বোর্ড সদস্যরা অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে ঋণের বিপরীতে কোনো মর্টগেজ গ্রহণ ছাড়া ১০টি কাগুজে প্রতিষ্ঠানের মালিককে ঋণ দিতে সহযোগিতা করেন।

বিজ্ঞাপন

সচিব আরও বলেন, বেনিফিসিয়ারিরা ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা ভুয়া ঋণের নামে উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেন। পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন লেয়ারিংয়ের মাধ্যমে ভুয়া কোম্পানি ও বিভিন্ন ব্যক্তির হিসাবে উক্ত অর্থ স্থানান্তর ও রুপান্তরের মাধ্যমে অবস্থান গোপন রেখে পাচার করে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে শাস্তিযাগ্যে অপরাধ করে।

ফলে, মোট ৩৭ জন ব্যক্তির বিরুদ্ধে পৃথক পৃথক ১০টি মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন। প্রতিটি মামলায় রিলায়েন্স লিজিং ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক পি কে হালদারকে আসামি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে ২৫ জানুয়ারি পি কে হালদার কেলেঙ্কারিতে ৩৫০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ৩৩ শীর্ষ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পৃথক ৫ মামলা করে দুদক।এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পি কে হালদারের সহযোগী হিসেবে ৬২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

ক্যাসিনো অভিযানের ধারাবাহিকতায় প্রায় ২৭৫ কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পি কে হালদারের বিরুদ্ধে প্রথম মামলা করে দুদক। গত ৮ জানুয়ারি দুদকের অনুরোধে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা দিয়ে রেড অ্যালার্ট জারি করে ইন্টারপোল। এ কেলেঙ্কারিতে এখন পর্যন্ত ২৮ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুদক। গ্রেফতার হয়েছেন ৭ জন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসজে/এসএসএ


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button