আইন-বিচার

তৈমুর আলমের দুর্নীতির মামলা বাতিলের রায় আপিলে বহাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সিএনজিচালিত ফোর স্ট্রোক বেবিট্যাক্সি বিতরণে অনিয়মের অভিযোগের মামলায় বিআরটিসির সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা তৈমুর আলম খন্দকারের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা বাতিল করে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে মামলাটি বাতিল করে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল থাকলো বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে দুদকের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে আজ দুদককের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। আর তৈমুর আলম খন্দকারের পক্ষে ছিলেন আব্দুল্লাহ আল মামুন।

বিজ্ঞাপন

মামলার বিবরণে জানা যায়, ক্ষতিগ্রস্ত ৩৭ হাজার বেবিটেক্সি চালকের মধ্যে দু’শ ফোর স্ট্রোক অটোরিকশা বিতরণ করা হয়। এই বিতরণে অনিয়মের মাধ্যমে রাষ্ট্রের এক কোটি টাকা ক্ষতি করার অভিযোগে ২০০৭ সালের ১৯ আগস্ট পল্টন থানায় মামলা করেন ঢাকা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ খোকন।

মামলায় তৎকালীন যোগাযোগ মন্ত্রী নাজমুল হুদা, বিআরটিসির চেয়ারম্যান তৈমুর আলম খন্দকারসহ ৯ জনকে আসামি করা হয়। এ মামলায় তদন্ত শেষে তৈমুর আলম খন্দকারসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ১১ মে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। আর নাজমুল হুদাসহ ৫ জনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

এরপর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ২০০৮ সালের ১৩ মে মামলাটি আমলে নেন। পরবর্তীতে মামলা বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন তৈমুর আলম খন্দকার। তার আবেদনের শুনানি নিয়ে মামলাটি বাতিল করে ২০১৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রায় দেন হাইকোর্ট।

এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করে দুদক। সেই আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত আজ (বৃহস্পতিবার) এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/কেআইএফ/এমও


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button