শিক্ষা

স্কুল-কলেজের ছুটি আরও বাড়তে পারে: শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ কমে আসতে থাকলে প্রায় একবছর ধরে বন্ধ থাকা দেশের স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী ৩০ মার্চ থেকে খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল সরকার। তবে গত কয়েকদিন এই ভাইরাসের সংক্রমণ ফের বাড়তে শুরু করেছে। এ পরিস্থিতিতে স্কুল-কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১২ মার্চ) বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মুজিববর্ষের অনুষ্ঠান আয়োজনের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবারও বাড়ছে। এটি আরও বাড়তে থাকলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ পেছাতে পারে। কারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে সবার আগে। এই সময়ে আগের নিয়মে শ্রেণি কার্যক্রম চলবে।

বিজ্ঞাপন

ডা. দীপু মনি আরও বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে জাতীয় ও কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে ও পরিস্থিতি বুঝে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। তবে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষাই অগ্রাধিকার পাবে।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলে ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এরপর করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় দফায় দফায় সেই ছুটি বাড়তে থাকে। সবশেষ ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (কওমি ছাড়া) বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে করোনা সংক্রমণের হার কমে আসতে থাকলে এবং গত ৭ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হলে স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। পরে ২৭ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ৩০ মার্চ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে

সারাবাংলা/টিএস/টিআর


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button