খেলা

কথোপকথনে রুবেল-শরিফুলের নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতির গল্প

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

নিউজিল্যান্ড সিরিজ সামনে রেখে জোর গতিতে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। কুইন্সল্যান্ডে দলের ৫ দিনের প্রস্তুতির মিশন শুরু হয়েছে গত ১১ মার্চ। প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যমণ্ডিত শহরটিতে ইতোমধ্যেই চার দিন ব্যাটে-বলে বিস্তর ঘাম ঝড়িয়েছে সফরকারী দলটি। তার আগে ক্রাইস্টচার্চে এক সপ্তাহ করেছে কোয়ারেন্টাইনকালীন অনুশীলন। অর্থাৎ সব মিলে ১১ দিন ধরে সিরিজের প্রস্তুতি নিচ্ছে ডোমিঙ্গো শিষ্যরা।।

বিজ্ঞাপন

তো কেমন হচ্ছে, সেই প্রস্তুতি? এবার নিউজিল্যান্ডে ব্যতিক্রম কিছু হবে তো? নাকি সেই হারের বৃত্তেই (সব ফর্মেটে ২৬ ম্যাচে জয়শূন্য) ঘুরপাক খেয়ে খেলে দেশে ফিরবে লাল সবুজের দল? এমন বেশ কয়েকটি প্রশ্ন তরুণ টাইগার পেসার শরিফুল ইসলাম জানতে চেয়েছিলেন সিনিয়র রুবেল হোসেনের কাছে। রুবেল হোসেন যার উত্তর দিয়েছেন প্রাণখুলে এবং আশারবাণীর সংমিশ্রনে। অনুরুপ রুবেল হোসেনও শরিফুলের প্রস্তুতি এবং স্টক বল নিয়ে জানতে চেয়েছেন। শরিফুলের কাছ থেকে মিলেছে স্পোর্টিং উত্তর।

রোববার (১৪ মার্চ) কুইন্সটাউনে এই দুই টাইগারের এই কথোপকথন হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। সারাবাংলার পাঠকদের জন্য পুরো কথোপকথনটি তুলে ধরা হল।

বিজ্ঞাপন

শরিফুল: নিউজিল্যান্ডে কেমন লাগছে?

রুবেল: নিউজিল্যান্ডে তো এর আগেও অনেক এসেছি। নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে আসলে বোলিং করতে ভালো লাগারই কথা। এখানকার উইকেট সুন্দর থাকে, স্পোর্টিং থাকে। ব্যাটসম্যানদের জন্য হেল্পফুল কিন্তু বোলাররা যদি ভালো জায়গায় বল করতে পারে, প্ল্যান অনুযায়ী, আমার কাছে মনে হয় বোলারদের জন্যও ভালো হবে।

বিজ্ঞাপন

কথোপকথনে রুবেল-শরিফুলের নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতির গল্প

শরিফুল: আমার কাছে মনে হয় আপনি বাংলাদেশের সফলতম পেসারদের একজন। নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচে জেতানোর অনেক অভিজ্ঞতা আপনার আছে। দর্শকরা আপনার কাছে অনেক কিছু আশা করে। তো আপনি এখন কতটুকু চেষ্টা করছেন নিজের সেরাটা দেওয়ার?

বিজ্ঞাপন

রুবেল: অবশ্যই। আমি সব সময়ই চেষ্টা করি। ইনশাআল্লাহ সামনে আমি যদি সুযোগ পাই আমি আমার হান্ড্রেড পার্সেন্ট দেব। প্লাস হচ্ছে আমি আমার ভালো স্মৃতিগুলো, কীভাবে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ভালো খেলেছিলাম, চেষ্টা করব নিজের মাথায় নেওয়ার জন্য। এবং দলের প্ল্যান অনুযায়ী এক্সেকিউশনটা খুব ভালো করতে হবে। তো এটাই আর কী। ইনশাআল্লাহ আই উইল ট্রাই মাই লেভেল বেস্ট।

শরিফুল: নিউজিল্যান্ডে এসে বাংলাদেশ কোনো ম্যাচ জিতিনি। এবার কি সেই রেকর্ডটা ভাঙতে পারবো? আপনার কতটুকু কনফিডেন্স?

বিজ্ঞাপন

রুবেল: ইনশাআল্লাহ, ইনশাআল্লাহ, অবশ্যই। কারণ আমরা যে টিম আছি আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি আমাদের সেই সামর্থ্য আছে। ইনশাআল্লাহ আমরা যদি সবাই প্ল্যান অনুযায়ী, উইকেটের সাথে, উইকেটটায় গিয়ে আমরা যদি খুব সুন্দরভাবে অ্যাডজাস্ট করতে পারি। টিমের তো অবশ্যই একটা প্ল্যান থাকে। আমরা সবাই যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারি তো নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ভালো কিছু হবে ইনশাআল্লাহ।

কথোপকথনে রুবেল-শরিফুলের নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতির গল্প

রুবেল: প্র্যাকটিস কেমন চলছে?

শরিফুল: আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভালো চলছে।

রুবেল: নিউজিল্যান্ডের উইকেট কেমন মনে হচ্ছে? তোমার তো প্রথম ট্যুর।

শরিফুল: উইকেটটা অনেক ভালো মনে হচ্ছে। স্কোরিং উইকেট। অ্যানিথিং ওয়াইড, পানিশড। জাস্ট লাইন অ্যান্ড লেংথে ঠিক করে বল করতে হবে।

রুবেল: তোমার প্রিপারেশন কেমন? ওদের কন্ডিশনে নিউজিল্যান্ড অনেক টাফ টিম, তো তোমার প্রিপারেশন কেমন?

শরিফুল: প্রস্তুতি তো আল্লাহর রহমতে ভালোই আছে। ওদের দেশে, ওদের সব জানা, তো ওদের সাথে খেলা একটু কঠিনই হবে। চেষ্টা করব নিজের প্ল্যানে থাকার।

রুবেল: তোমার স্টক বল কোনটা? সেটায় মনোযোগ দিচ্ছো বেশি?

শরিফুল: হ্যাঁ স্টক বলটায় মনোযোগ দিচ্ছি, স্টাম্প টু স্টাম্প, হালকা সুইং।

রুবেল: ঠিক আছে, গুড লাক, বেস্ট উইশেস ফর ইউ ব্রাদার!

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএইচএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button