সারাদেশ

চাঁদা তুলে ঘোড়ায় চড়িয়ে বুড়োবুড়ির বিয়ে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

বরিশাল: সময়ের স্রোতে ভাসতে ভাসতে নিঃসঙ্গ হয়ে পড়া অসহায় দুই বৃদ্ধ-বৃদ্ধাকে চাঁদা তুলে বিয়ে দিয়েছেন এলাকার যুবকরা। পার্লারে সাজিয়ে ঘোড়ায় চড়িয়ে বুড়োবুড়ির এই বিয়ে এলাকায় উৎসবের আমেজ তৈরি করে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে বজলু খান (৬৪) ও বকুল বেগমের (৫৮) বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ৩০ হাজার টাকা দেনমোহরে বিয়ে হয় তাদের। ঘোড়ার গাড়িতে বর এসে তুলে নিয়ে যায় কনেকে। রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে এই দৃশ্য উপভোগ করেন স্থানীয়রা।

আলোচিত এই বিয়ের বর বজলু খান বরিশালের উজিরপুরের কালিহাতা গ্রামের বাসিন্দা। ৩০ বছর আগে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তার সম্পর্ক ভেঙে যায়। ওই ঘরে দুই ছেলে এবং এক মেয়ে রয়েছে। দ্বিতীয় বিয়ে করে বরিশাল নগরীর সাগরদী দরগাহ্ বাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। তিনি পেশায় কাঠমিস্ত্রি। গত বছর নগরীর ১ নম্বর সিএন্ডবি পোল এলাকায় ট্রাক চাপায় দ্বিতীয় স্ত্রী মারা যাওয়ার পর নিঃসঙ্গ হয়ে পড়েন এই বৃদ্ধ।

বিজ্ঞাপন

চাঁদা তুলে ঘোড়ায় চড়িয়ে বুড়োবুড়ির বিয়ে

কনে বকুল বেগম নগরীর খান সড়ক এলাকার অস্থায়ী বাসিন্দা। ১০ বছর আগে স্বামী মারা যায়। একমাত্র ছেলে ঢাকায় থাকে। কিন্তু সে তার মায়ের খোঁজখবর নেয় না। জীবিকার তাগিদে নগরীর খান সড়ক এলাকায় মহাসড়কের পাশে বসে ডিম বিক্রি করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

এই বিয়ের অন্যতম উদ্যোক্তা মো. মাহাবুবুর রহমান মিলন এবং মো. ইমান আলী খান জানান, নব দম্পত্তির আপনজন কেউ তাদের খোঁজখবর নেয় না। তাই তারা চাঁদা তুলে দুইজন নিঃসঙ্গ নারী-পুরুষরে বিয়ের ব্যবস্থা করেছেন। আর্থিক অনটনের কারণে তাদের মনে যাতে কোনো আক্ষেপ না থাকে, সেজন্য সোমবার বরের বাসায় বৌ-ভাতেরও আয়োজন করা হয়।

নগরীর ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেহেদী পারভেজ খান আবীর জানান, জীবনে বাঁচার জন্য অবলম্বন দরকার। দুইজন নিঃসঙ্গ নারী-পুরুষের বিয়ের আয়োজন করে স্থানীয় যুবকরা একটি মহৎ কাজ করেছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button