জাতীয়

মিথ্যা বলায় পুরস্কার থাকলে মির্জা ফখরুল পেতেন: তথ্যমন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, মিথ্যা বলায় যদি কোনো পুরস্কার দেওয়া যেত তাহলে সেটা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব পেতেন। তিনি আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক সম্পর্কে বিভিন্ন কথা বলে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করেছেন। কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা সঠিক নয়।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৪ মার্চ) সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত আলজেরিয়ার রাষ্ট্রদূত রাবাহ লারবির সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মিথ্যা কথা বলেন। সেজন্য তাকে মানুষ ভিন্ন নামেও ডাকেন। তার বক্তব্য দেশবাসীর কাছে কৌতুক।

বিজ্ঞাপন

তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাজনীতিতে সমালোচনা হবে। আমাদের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে বা সরকারের সমালোচনা হতে পারে। তবে ব্যক্তিগত কোনো সমালোচনা করবেন না। উনি কৌতুক করেন আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদকের বিষয়ে, ওনার কথায় সারা দেশবাসী কৌতুক করে।

সুবর্ণজয়ন্তীর মাসে বিএনপি বেশ কিছু রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নেমেছে, সেক্ষেত্রে আপনাদের দল থেকে পাল্টা কোনো কর্মসূচি থাকবে কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে বিশ্বাস করি না। জনগণ আওয়ামী লীগকে রায় দিয়েছে দেশ পরিচালনার জন্য। প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে গত ১২ বছর ধরে দেশ পরিচালনা করছেন। সে কারণেই আজ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এসে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ এখন সবকিছুতেই স্বয়ংসম্পূর্ণ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ঘোষণা করেছেন বাংলাদেশে কোন গৃহহীন মানুষ থাকবে না। সেই লক্ষ্যে তিনি কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। করোনাকালে তিনি দলের সবাইকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন মানুষের পাশে থাকার জন্য। আমাদের দলের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে করোনার শুরু থেকে মানুষের পাশে থেকেছে।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের অনেক সংসদ সদস্য জনগণের জন্য কাজ করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, অনেকে মৃত্যুবরণ করেছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন জন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। মন্ত্রীসভার সদস্য ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেআর/এসএসএ


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button