বিনোদন

‘সংশোধনের পর’ সেন্সর পেলো ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’

আহমেদ জামান শিমুল

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শাপলা মিডিয়া বানিয়েছে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। গত ডিসেম্বরে ছবিটি সেন্সর বোর্ড দেখেও, কিন্তু কিছু দৃশ্যে বোর্ড সদস্যদের আপত্তি ছিল। সে সকল দৃশ্য সংশোধন করে জমা দেয় প্রযোজনা সংস্থা। চার মাস পর অবশেষে ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসীমউদ্দিন সারাবাংলাকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা ছবিটিতে কিছু পর্যবেক্ষণ দিয়েছিলাম। ছবির পরিচালক তা সংশোধন করে নতুন করে জমা দেন। আমাদের সদস্যরা সংশোধিত কপি দেখেছেন। দেখে সেন্সর দিতে সম্মত হয়েছেন। বলতে পারেন সংশোধনের পর ছবিটি ছাড়পত্র পেয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

একই প্রযোজনা সংস্থা থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘আগস্ট ১৯৭৫’। সে ছবিটিও গত জুলাই থেকে সেন্সরে আটকা। ওই ছবিটিও সংশোধন সাপেক্ষে বোর্ডে জমা দেওয়া হয়েছে। গত ১ মার্চ ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’সহ ছবিটি দুটি পুনরায় দেখেন বোর্ড সদস্যরা।

তখন বোর্ড সচিব মো. মমিনুল হক সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা তাদের কিছু সংশোধনী দিয়েছিলাম। আমাদের নির্দেশনা অনুযায়ী তারা ছবি দু’টি জমা দিয়েছিল। কিন্তু আমরা এখনই কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারছি না। আমরা আমাদের একটা মতামত তথ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠাব। এরপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ওখান থেকে আসবে।’

বিজ্ঞাপন

তবে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ সেন্সর পেলেও ‘আগস্ট ১৯৭৫’-এর ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানালেন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান।

দুটি ছবিতেই উপদেষ্টা পরিচালক হিসেবে রয়েছেন শামীম আহমেদ রনী।

বিজ্ঞাপন

‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’-এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন শান্ত খান ও দীঘি। টুঙ্গিপাড়ার মতো একটি গ্রাম থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কিভাবে একটি জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা নেতায় পরিণত হয়ে উঠেছিলেন, তা নিয়েই আবর্তিত হয়েছে এই ছবির কাহিনি।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শেষ রাত থেকে ১৬ই আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মরদেহ দাফন পর্যন্ত ইতিহাসের আলোকে নির্মিত হয়েছে ‘আগস্ট ১৯৭৫’। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাসুমা রহমান নাবিলা, শহীদুজ্জামান সেলিম, তৌকীর আহমেদ।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button