বিনোদন

চক্রান্তের ফাঁদে ১৬ কোটি রূপি হারালেন গোবিন্দ

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একসময়ের পর্দাকাঁপানো অভিনেতা গোবিন্দ। ৯০ দশকের অন্যতম জনপ্রিয় এই অভিনেতা এবার অভিযোগ আনলেন খোদ বলিউড ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধেই। ইচ্ছাকৃতভাবে তাকে দূরে ঠেলে দেওয়া হয়েছে যার জেরে বিরাট আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে এই হিরো নম্বর ১-কে।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে গোবিন্দ বলেন, ‘আমাকে কোনওদিন কারুর বিরুদ্ধে কথা বলতে দেখবেন না। যদিও অন্যরা হামেশাই আমার বিরুদ্ধে বলে থাকে। আমি কারুর কাজ নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না, অথবা কারুর বিচার করতে চাই না কারণ আমি সকলের পরিশ্রমকে সম্মান জানাই, সেই কাজের পিছনে যে অর্থ বিনিয়োগ হয়েছে সেটাকেও।’

আক্ষেপ জানিয়ে গোবিন্দ আরও জানালেন, ‘গত ১৪-১৫ বছরে, আমি অর্থ বিনিয়োগ করেছি, এবং প্রায় ১৬ কোটি টাকার লোকসান হয়েছে। ইন্ডাস্ট্রির মানুষজন আমার সঙ্গে খুব বাজে ব্যবহার করেছে। আমার ছবি হলে মুক্তি পায়নি কারণ সকলে আমার কেরিয়ার ধ্বংস করে দিতে চেয়েছে, যদিও সেটা সম্ভব হয়নি। আমি ফের নতুন করে শুরু করছি ২০২১-এ।’

বিজ্ঞাপন

তার বিরুদ্ধে কি বলিউড চক্রান্ত করেছে? প্রশ্নের জবাবে সহমত পোষণ করেন গোবিন্দ। বলেন, ‘হ্যাঁ, একদমই তাই। যেমনটা কথাতেই আছে, আপনজনেরাও পর হয়ে যায়। ভাগ্য সঙ্গ না দিলে কাছের মানুষরাও চিনতে পারে না, তোমার বিরুদ্ধে হয়ে যায়।’

এদিকে সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ‘কুলি নম্বর ১’-এর রিমেক নিয়েও মন্তব্য করেছেন গোবিন্দ। গত বছর ডিসেম্বরেই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে বরুণ-সারা অভিনীত ‘কুলি নম্বর ১’। ২৫ বছর আগে গোবিন্দ-করিশ্মা জুটি অভিনীত ছবির রিমেক ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়। দুটি ছবিই পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ডেভিড ধাওয়ান। গত কয়েক বছরে ডেভিড ধাওয়ানের সঙ্গে গোবিন্দর সম্পর্ক একদমই তলানিতে ঠেকেছে। প্রায় মুখ দেখাদেখি বন্ধ, তবুও এই ছবি নিয়ে নেগেটিভ মন্তব্য করলেন না গোবিন্দ।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএসজি


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button