রাজধানী

জনকণ্ঠে গণছাঁটাইয়ের অভিযোগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিভিন্ন দাবি-দাওয়া আদায়ের ইস্যু তোলায় দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকায় সাংবাদিক-কর্মচারীদের গণছাঁটাই করার অভিযোগ উঠেছে। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের জনকণ্ঠ ইউনিট চিফ রাজন ভট্টাচার্য সারাবাংলাকে বলেন, ‘সাংবাদিক-কর্মচারীদের ভবনে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। জনকণ্ঠ ভবনে পুলিশ পাহারা বসানো হয়েছে। আমরা বিকেল ৪টায় জনকণ্ঠ ভবনের সামনে সমাবেশের ডাক দিয়েছি।’

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে জনকণ্ঠের সাংবাদিক ও কর্মচারীদের প্রমোশন নেই। ইনক্রিমেট দেওয়া হচ্ছে না। অষ্টম ওয়েজ বোর্ড পুরোপুরি বাস্তবায়ন হয়নি। এ সব দাবি বাস্তবায়নের জন্যে আমরা জনকণ্ঠ কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছি।’

রাজন ভট্টাচার্য বলেন, ‘কয়েকদিন আগে জনকণ্ঠ ভবনে এক বৈঠকে সবার সম্মতিতে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা চিঠিতে জানিয়েছিলাম ১৫ মার্চের মধ্যে তা বাস্তবায়ন করতে হবে। কিন্তু সাংবাদিক কর্মচারীদের মেইলে ছাঁটাইয়ের চিঠি দেওয়া হচ্ছে। সাংবাদিক কর্মচারীদের ভবনে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। ভাড়াটে গুণ্ডা মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ প্রহরা বসানো হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

জনকণ্ঠে গণছাঁটাইয়ের অভিযোগ

উল্লেখ্য, দাবি-দাওয়া আদায়ে গত বৃহস্পতিবার সমাবেশ করে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের ‘জনকণ্ঠ ইউনিট’ এবং দৈনিক জনকণ্ঠ সাংবাদিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ। ইস্কাটনের জনকণ্ঠ ভবনের তৃতীয় তলায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে জনকণ্ঠে কর্মরত দুই শতাধিক সাংবাদিক কর্মচারী সহ ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত সমূহের মধ্যে রয়েছে, সাংবাদিক কর্মচারীদের কেউ পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধের পক্ষে নয়। আগের মতো প্রতিযোগিতামূলক পত্রিকার প্রকাশনা অব্যাহত রাখার দাবি সবার। আগামী ১৫ মার্চের মধ্যে শ্রম আইন অনুযায়ি বঞ্চিতদের অস্টম ওয়েজবোর্ড হালনাগাদ, সকল সাংবাদিক কর্মচারীদের প্রমোশন ও ইনক্রিমেন্ট বাস্তবায়ন করতে হবে। অন্যায়ভাবে কোনো সাংবাদিক কর্মচারীকে ছাঁটাই করা যাবে না। জনকণ্ঠে কর্মরত সবাই অফিসের নিয়ম মেনে কাজ করতে বদ্ধ পরিকর।

জনকণ্ঠ ইউনিট চীফ রাজন ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, সাংবাদিক নেতা আতিকুর রহমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদুর রহমান জিহাদ, প্রচার সম্পাদক আসাদুজ্জামানসহ অন্যরা।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একে


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button