জাতীয়

হাসিনা-মোদি বৈঠক ২৭ মার্চ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে আগামী ২৭ মার্চ একান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এই বৈঠক ছাড়াও প্রতিনিধি পর্যায়ে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে দুই দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। এছাড়া বৈঠক শেষে দুই প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে কিছু সমঝোতা স্মারক সই এবং কয়েকটি প্রকল্প উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে সরকার। যা আগামী ১৭ থেকে ২৬ মার্চ তারিখ পর্যন্ত জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে। এই অনুষ্ঠানে দক্ষিণ এশিয়ার পাঁচ দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা যোগ দেবেন। অনুষ্ঠান উপলক্ষে আগামী ২৬ থেকে ২৭ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ সফর করবেন।

বিশাল এই অনুষ্ঠানমালাকে সামনে রেখে ঢাকার ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন সোমবার (১৫ মার্চ) গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে বিস্তারিত তুলে ধরেন।

বিজ্ঞাপন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে আগামী ২৬ থেকে ২৭ মার্চ বাংলাদেশ সফর করবেন। তিনি মূলত মুজিববর্ষ উদযাপন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের যৌথ উদযাপন উপলক্ষে রাষ্ট্রীয়ভাবে এই সফর করছেন। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও দেশটির বিভিন্ন দফতরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা তার সফরসঙ্গী হিসেবে যোগ দেবেন।’

তিনি জানান, সফরের প্রথম দিন (২৬ মার্চ) রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে বিমানবন্দরে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। এরপর তিনি সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধের শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করবেন। একই দিন বিকেলে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ‘গেস্ট অব অনার’ হিসেবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন। সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যৌথভাবে তিনি বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনী পরিদর্শন করবেন। সফরের দ্বিতীয় দিন (২৭ মার্চ) সকালে তিনি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ পরিদর্শন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। এছাড়া তিনি সাতক্ষীরা ও গোপালগঞ্জে দুটি মন্দির পরিদর্শন করে স্থানীয় জনগণের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত পরিসরে মতবিনিময়ের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ২৭ মার্চ বিকেলে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্ত বৈঠক ছাড়াও প্রতিনিধি পর্যায়ে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে দুই দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এছাড়া বৈঠক শেষে দুই প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে কিছু সমঝোতা স্মারক সই এবং কয়েকটি প্রকল্প উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে। উভয় প্রধানমন্ত্রী একইসঙ্গে নিজ নিজ দেশের পক্ষে বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর পূর্তি উপলক্ষে পৃথক দুটি স্মারক ডাকটিকিট উন্মোচন করবেন। এছাড়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। সফর শেষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২৭ মার্চ রাতে দিল্লির উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন।

সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, পররাষ্ট্র সচিব (পূর্ব) মাশফি বিনতে শামস এবং চিফ অব প্রটোকল আমানুর রহমানসহ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেআইএল/পিটিএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button