জাতীয়

দেশের সব পর্যটন কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি মানার তাগিদ প্রতিমন্ত্রীর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে যাতে পর্যটকেরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সেজন্য স্থানীয় প্রশাসনকে সর্তক দৃষ্টি রাখার তাগিদ দিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী। তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা অত্যন্ত জরুরি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনো বিকল্প নেই।’

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১৫ মার্চ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও বাংলাদেশের পর্যটন: স্বপ্নযাত্রা থেকে আজকের বাস্তবতা’ শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় সংক্রমণ রোধে পর্যটক ও পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িত সব অংশীজনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনেরও আহ্বান জানান তিনি।

দেশের পর্যটন শিল্পে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নানা উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরেই বাংলাদেশে পর্যটন শিল্পের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু। দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশের স্বার্থে তিনি বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন।

বিজ্ঞাপন

পর্যটন কোনো একক বিষয় নয়, এটি দেশের সার্বিক উন্নতির সঙ্গে সম্পর্কিত উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে তথ্য প্রযুক্তির উন্নতি, আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, গ্রামীণ উন্নয়ন, খাদ্যে স্বনির্ভরতা ও শতভাগ বিদ্যুতায়নের ফলে দেশে পর্যটন শিল্পের বিকাশের উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের পর্যটন উন্নয়ন যে স্বপ্ন দেখেছিলেন আজ তার সফল বাস্তবায়ন হচ্ছে বঙ্গবন্ধু কন্যার হাত ধরে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সকলের আন্তরিক অংশগ্রহণেই পর্যটন খাত সামনে এগিয়ে যাবে।’

সভাপতির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন বলেন, ‘পর্যটনের অর্থনৈতিক গুরুত্ব অনুধাবন করেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের প্রথম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় পর্যটনকে গুরুত্ব দিয়ে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা নিয়েছিলেন।’

বিজ্ঞাপন

ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের মহাপরিচালক রাম চন্দ্র দাস। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. হান্নান মিয়াসহ খাত সংশ্লিষ্ট বিশিষ্টজনেরা অংশ নেন আলোচনায়।

সারাবাংলা/জেআর/এমও


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button