সারাদেশ

সন্তান হত্যার দায়ে মায়ের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের নয় মাস বয়সী সন্তানকে গলাকেটে হত্যার দায়ে মুক্তা খাতুন (২২) নামে এক নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে তার ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুরের সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির এ রায় দেন। এই মামলা দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচার সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্দুর রহমান।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার ছোট মহারাজপুর গ্রামের মুক্তা খাতুনের সঙ্গে পাশের জোতপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহ আল মামুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। এর মধ্যে ২০২০ সালের ২৮ এপ্রিল আব্দুল্লাহ আল মামুন ধান কাটতে নওগাঁ যান। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে মুক্তা খাতুন রেগে গিয়ে ওইদিন রাতে তার শিশু সন্তান মাহমুদুল্লাহ মাহিমকে মুখে টেপ পেঁচিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় শিশুটির বাবা স্ত্রীকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আদালত ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন। পরে শিশু হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মুক্তা খাতুনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিলেন আদালত।

সারাবাংলা/পিটিএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button