রাজধানী

সুবর্ণজয়ন্তীর শৃঙ্খলায় ব্যাঘাত ঘটলে কঠোর ব্যবস্থা: র‍্যাব ডিজি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কেউ যদি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে ব্যাঘাত ঘটাতে চায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাব কঠোর থেকে কঠোরতর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুরে কারওয়ান বাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে র‍্যাব তিন স্তরের (জল, স্থল ও আকাশ) বিশেষ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে। সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে র‍্যাব সদর দফতর থেকে মনিটরিং করা হবে। অনুষ্ঠানে কেউ যদি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ব্যাঘাত ঘটালে চায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাব কঠোর থেকে কঠোরতর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অনুষ্ঠানে জঙ্গি হামলারও কোনো আশঙ্কা নেই বলে দাবি করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাব ডিজি বলেন, সার্বিকভাবে সব ধরনের ঝুঁকি মোকাবিলা করে সার্বক্ষনিক নিছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। এই অনুষ্ঠানকে সামনে রেখে সারাদেশে র‍্যাব নিরাপত্তা জোরদার করেছে। অনুষ্ঠান চলাকালীন ও অনুষ্ঠান শেষেও র‍্যাবের নিরাপত্তা অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, র‍্যাবের স্ব স্ব ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো তথ্য পেলে র‍্যাবের কন্ট্রোল রুম ও অনলাইনের মাধ্যমেও র‍্যাবের সঙ্গে যেকেউ যোগাযোগ করতে পারবে। সাদা পোশাক ও র‍্যাবের পোশাকেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। বিভিন্ন দেশ থেকে আসা আগত ভিভিআইপিদের নিরাপত্তায় র‍্যাবের সদর দফতর থেকে পাঁচ জন অফিসার সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাব ডিজি বলেন, যেকোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবিলায় র‍্যাবের ডগ স্কোয়াড, পর্যাপ্ত রিজার্ভ ফোর্স, স্পেশাল টিম সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে। সিসিটিভির মাধ্যমে সব সময় নজরদারিও করা হবে। চেকপোস্টে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের শনাক্তকরণে র‍্যাবের নজরদারি থাকবে। এয়ারফোর্সের এয়ার উইং ও হেলিকপ্টার যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় র‍্যাবের নজরদারি থাকবে। বিদেশি অতিথিদের সার্বক্ষণিক প্রটেকশন টহল প্রস্তুত থাকবে।

চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন আরও বলেন, ভিভিআইপিদের হোটেল ও যে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ ভ্যানুতে যাতায়াত করবেন সবগুলোতে র‍্যাবের কড়া নজরদারি থাকবে। এছাড়াও র‍্যাবের সাইবার ক্রাইম ইউনিট সবসময় নজরদারি করবে।

বিজ্ঞাপন

মোদি বিরোধীদের আন্দোলন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, দেশ ও বৃহত্তর জাতির স্বার্থে আমরা আশা করি তারা এ ধরনের আন্দোলন থেকে বিরত থাকবে। যদি কেউ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ব্যাঘাত ঘটাতে চায় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সারাবাংলা/এসএইচ/এনএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button