বিনোদন

করোনা বিধি লঙ্ঘন, নিষিদ্ধ হলেন গওহর খান

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

করোনা বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে এবার গওহর খানকে নিষিদ্ধ করল ফেডারেশন অফ ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনেমা এমপ্লইজ। আপাতত ২ মাসের জন্য অভিনেত্রীর উপর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তারপরেও গওহর কাজ করতে পারবেন কিনা, সে বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়া সত্ত্বেও শুটিংয়ে গিয়েছিলেন গওহর খান। মুম্বাইয়ের ওশিয়াড়া থানায় অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল বৃহন্মুম্বাই পৌরসভার (বিএমসি) পক্ষ থেকে। বিএমসি’র পক্ষ থেকে টুইট করেও জানানো হয়েছিল একথা। টুইটে গওহর খানের নাম উল্লেখ করা না হলেও সেখানে জানানো হয়, ‘শহরের নিরাপত্তার সঙ্গে কোনওরকম আপস করা যাবে না। বলিউডের এক অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। কারণ, তিনি কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সুরক্ষা বিধি মানেননি। নিয়ম সকলের জন্যই সমান। তাই সকলকে সমস্ত নিয়ম মানার অনুরোধ করা হচ্ছে। এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়তে হবে।’

পরে বিএমসির এক কর্মকর্তা জানান, গওহর খানের করোনা হওয়ার খবর পেয়েই তার অন্ধেরি ওয়েস্টের বাড়িতে গিয়েছিলেন পৌরসভার কর্মীরা। কিন্তু ওখানে গিয়ে তারা জানতে পারেন করোনা আক্রান্ত অভিনেত্রী শুটিংয়ে বেরিয়ে গিয়েছেন। এরপরই থানায় গওহরের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন গওহর। বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছেন, তিনি কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়ার পরই শুটিংয়ে গিয়েছিলেন। তবে, ফেডারেশন অফ ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনেমা এমপ্লইজ-এর নোটিশে জানানো হয়েছে, করোনা আক্রান্ত হয়ে শুটিং করে অভিনেত্রী দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছেন। তার সঙ্গে শুটিং করা ক্রু মেম্বারদের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন। এই বিষয়টি একেবারেই বরদাস্ত করা হবে না বলে জানানো হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত ফেডারেশনের সমস্ত সদস্যদের গওহর খানের সঙ্গে কোনও কাজ না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর জবাবে নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে আবার গওহর লিখেছেন, ‘সত্যের জয় সবসময় হয়।’

সারাবাংলা


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button