খেলা

মুজিববর্ষে বিসিবি’র সব আয়োজনই বঙ্গবন্ধুর নামে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২০২০ সাল থেকেই ক্রিকেটের সকল টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধুর নামে আয়োজিত হয়ে আসছে। আগামী আয়োজনগুলোও (দেশি-বিদেশি) বঙ্গবন্ধুর নামাঙ্কিত হবে।

বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দিয়ে মুজিব জন্মশতবার্ষিকীতে (২০২০) প্রথম কোন টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছিল বিসিবি। এরপর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ২০১৯-২০ও আয়োজিত হল। কিন্তু ঠিক তখনই (১৫ মার্চ) দেশব্যাপি করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব ছড়ানো শুরু করলে নভেম্বর অবধি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক কোন ক্রিকেট আয়োজন করেনি টাইগার ক্রিকেট প্রশাশন। এরপর নভেম্বর জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরী করে মহামারিকালে প্রথমবারের আয়োজিত হলো ৫ দলের বঙ্গবন্ধু টি টোয়েন্টি কাপ। এমনকি গেল মাসে শেষ হওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজও বঙ্গবন্ধুর নামাঙ্কিত ছিল। এভাবে চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত (মুজিব বর্ষ) যতো দেশি ও আন্তর্জাতিক সিরিজ ও টুর্নামেন্ট বিসিবি কর্তৃক আয়োজিত হবে এর সবই বঙ্গবন্ধুর নামে বলে জানালেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বুধবার (১৭ মার্চ) হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে জাতির জনকের ১০১তম জন্মদিনে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে এসে তিনি একথা জানান।

বিজ্ঞাপন

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমাদের পরিকল্পনা সেটাই, যতগুলো আমাদের টুর্নামেন্ট আছে দেশে ঘরোয়া হোক আন্তর্জাতিক সবগুলো বঙ্গবন্ধুর নামে হবে।’

মুজিববর্ষে বিসিবি’র সব আয়োজনই বঙ্গবন্ধুর নামে

বিজ্ঞাপন

বিসিবি বস এসময় কথা বলেন আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়েও। এপ্রিলের শুরুতে নিউজিল্যান্ড থেকে ফিরেই ওই মাসের মাঝামাঝিতে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে দেশটি সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে টিম টাইগার্সদের। ঠিক তার পরের মাসেই আবার বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ হিসেবে তিন ম্যাচ সিরিজের ওয়ানডে খেলতে লঙ্কানদের বাংলাদেশ সফরের কথা রয়েছে। কিন্তু হুট করেই দেশব্যাপী করোনার সংক্রমন বাড়তে শুরু করেছে। এমতাবস্থায় সিরিজ দুটো হবে তো?

এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বললেন , ‘আগামী সিরিজগুলো এখনো শঙ্কায় আমি দেখছি না। আমরা তো একবার পেরেছি এই যে ট্রান্সমিশনটাকে কন্ট্রোল করতে আমরা পেরেছি। আমরা চেষ্টা করলে আবারও পারব । আমার ধারনা আমরা মাসখানেকের মধ্যে আবারও আগের জায়গায় ফেরত যেতে পারব তবে সকলের সহযোগিতা দরকার।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএইচএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button