রাজধানী

‘নিউ নরমাল’ বইমেলা শুরু হচ্ছে আজ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ‘আমাকে ভালবাসার পর আর কিছুই আগের মত থাকবে না তোমার’ – হুমায়ুন আজাদের বহুল জনপ্রিয় এই কবিতার মতো করোনা পরবর্তী পৃথিবী পাল্টে ফেলেছে তার অনেক আচরণ। যার নাম দেওয়া হয়েছে নিউ নরমাল। আর এই নিউ নরমাল যামানার প্রথম বইমেলা শুরু হতে যাচ্ছে বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ)।

বিজ্ঞাপন

অমর একুশে বইমেলা মানেই সারা দেশ থেকে ছুটে আসা লেখক-পাঠকের মিলনমেলা। গেল বছরেও বইমেলা ছিল লোকে লোকারণ্য। সেখানে এ বছর মেলায় ঢুকতে হচ্ছে জনপ্রতি তিন ফুট দূরত্ব রেখে। এর আগে, মেলার গেটে সাবান আর স্যানিটাইজার দিয়ে ধুয়ে নিতে হচ্ছে হাত। বাধ্যতামূলকভাবে পরতে হচ্ছে মাস্ক। সেই সঙ্গে যে কোনো সময় মেলা বন্ধ হয়ে যাওয়ার অনিশ্চয়তা তো রয়েছেই। আর এই অনিশ্চয়তার মূলে রয়েছে বৈশ্বিক মহামারির নিদারুণ সংক্রমণ।

এই অনিশ্চয়তার আলাপ আপাতত বাদ। তারচেয়ে বরং এবারের মেলা দেখতে কেমন হয়েছে সেই বর্ণনায় যাওয়া যাক। এবারের মেলাও গেল কয়েক বছরের মতো বাংলা একাডেমির মূল চত্ত্বর পেরিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পর্যন্ত বিস্তৃত করা হয়েছে। এখনো কিছু স্টলের নির্মাণকাজ বাকী। অনেক স্টল আবার সেজেছে নতুন বইয়ের পসরায়। কোথাও আবার বিক্রয়কর্মীরা বসে পড়েছেন বই হাতে।

বিজ্ঞাপন

এবারের গ্রন্থমেলার অনেক নতুনের মতো উদ্বোধনও হচ্ছে নতুন কায়দায়। প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রী নিজে এসে মেলার উদ্বোধন করলেও এবার সেটি হবে ভার্চুয়ালি। বেলা তিনটায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি ৩৭তম এই বইমেলা উদ্বোধন করবেন। তবে বর্ধমান হাউজের পাশে মেলার উদ্বোধন মঞ্চ রাখা হয়েছে আগের মতোই। মেলার প্রতিদিনই সেখানে বসবে সাহিত্য অনুরাগীদের নানাবিধ আলোচনা আর কবিতা পাঠের আসর।

মেলার উদ্বোধনের পর বাংলা একাডেমি থেকে প্রকাশিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘আমার দেখা নয়াচীন’ বইটির ইংরেজি অনুবাদ ‘নিউ চায়না-১৯৫২’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হবে। এবারের মেলা উৎসর্গ করা হবে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি। এছাড়াও, মেলার থিম ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী’।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিএস/একেএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button