আইন-বিচার

নিবন্ধনে উত্তীর্ণ ২৫৩ জনকে নিয়োগ দিতে হাইকোর্টের রুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) আয়োজিত ১৩তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও নিয়োগবঞ্চিত ২৫৩ জনকে নিয়োগ দিতে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) বিভাগের সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সাত জনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) এ সংক্রান্ত এক রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম এবং বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

১৩তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হিসেবে সনদধারী হয়েও নিয়োগবঞ্চিত ২৫৩ জন প্রার্থীকে বিভিন্ন শূন্য পদের বিপরীতে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা) তাদের কেন নিয়োগের সুপারিশ করা হবে না— তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ সিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল নাছিমুল ইসলাম।

আদেশের বিষয়টি সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন রিটকারীদের পক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া। তিনি বলেন, ১৩তম শিক্ষক নিবন্ধন সনদধারীদের ২০১৬ সালের পরীক্ষার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির আলোকে শূন্যে পদের ভিত্তিতে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করার কথা ছিল। এনটিআরসিএ সে নিয়ম অনুসরণ না করায় প্রাথমিকভাবে কিছু প্রার্থী হাইকোর্টে রিট আবেদন করেছিলেন। আদালত তাদের পক্ষে রায় দেন। পরে এনটিআরসিএ আপিল করলে তা আপিল বিভাগ খারিজ করে দেওয়ায় একই রায় বহাল ছিল। ওই রায়ের আলোকেই বর্তমান রিটকারীরা শূন্য পদের বিপরীতে নিয়োগের সুপারিশ চেয়েরিট দায়ের করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

আইনজীবী মোহাম্মদ সিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া আরও বলেন, আগের আবেদনকারীদের মতো বর্তমান রিটকারীরাও নিয়োগের সুপারিশে সমান সুযোগ পাবেন বলে আমি মনে করি।

রিটকারীদের মধ্যে রয়েছেন— মো. সুমন, মো. সাইফুল্লাহ্, মো. আব্দুল জলিল, মো. গোলজার হোসেন, মো. দেলোয়ার হোসেন, আব্দুর রহিম, রাহাতুল আশিকিন, মো. সোহেল, ফারুকুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, মো. বিল্লাল হোসেন, রাজিব রঞ্জন দাস, শহিদ আলম, কামরুন নাহার, মো. হাবিবুর রহমান, মো. জসিম উদ্দিন, জেসমিন আক্তার, রেজাউল করিম, মংশে মারমা, গোবিন্দ চন্দ্র দাসসহ ২৫৩ জন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/কেআইএফ/টিআর


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button