রাজনীতি

শাল্লায় হামলাকে সুবর্ণজয়ন্তীতে সরকারের ‘উপহার’ বললেন বাবলু

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘরবাড়ি ও মন্দিরে হামলাকে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে সরকারের ‘উপহার’ বলে উপহাস করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, দেশে কোনো মানুষের নিরাপত্তা নেই। সংখ্যালঘুদের বাড়ি-ঘরে হামলা হচ্ছে সুবর্ণজয়ন্তীতে সরকারের উপহার। একদলীয় শাসন ব্যবস্থায় সরকারের সমর্থন ছাড়া সংখ্যালঘুদের ওপর কেউ হামলা করতে পারে— এটা সাধারণ মানুষ বিশ্বাস করে না। যারাই হামলা করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

শনিবার (২০ মার্চ) জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাপা’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত মিলাদ মাহফিল ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের ঘরবাড়িতে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে জাপা মহাসচিব বলেন, কেবল হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করে সব ধর্মাবলম্বীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছিলেন।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হচ্ছে শোষণ-নির্যাতন ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ। আজ সুবর্ণজয়ন্তীতে মূল্যায়ন করলে দেখা যায়, মানুষের বাকস্বাধীনতা নেই, মানুষ কথা বলতে পারে না। দেশে দুর্নীতির উন্নয়ন হয়েছে, আর অবনতি হয়েছে সুশাসনের। দেশে একদলীয় শাসন চলছে, মানুষ নিঃশ্বাস ফেলতে পারছে না। দেশের মানুষ আওয়ামী দুঃশাসন থেকে মুক্তি চাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

জাপা মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগের পায়ের নিচে মাটি নেই। আর বিএনপি নেতৃত্ব শূন্যতায় ভুগছে। তাই গণতন্ত্রহীনতা ও বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে দেশের মানুষ মুক্তি পেতে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে জাতীয় পার্টি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত এরশাদের স্বপ্নের নতুন বাংলাদেশ গড়বে। তাই দলকে আরও শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জাতীয় পার্টি মহাসচিব।

পরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয় যুব সংহতি। সংগঠনের আহ্বায়ক ও জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান এইচ এম শাহরিয়ার আসিফের সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন যুব সংহতির সদস্য সচিব আহাদ ইউ চৌধুরী শাহিন।

বিজ্ঞাপন

এসময় বক্তৃতা করেন জাতীয় পার্টি সাবেক মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, এস এম ফয়সল চিশতী, মীর আব্দুস সবুর আসুদ ও আব্দুস সাত্তার মিয়া; উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য নুরুল আজহার শামীম; ভাইস চেয়ারম্যান এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ; যুগ্ম মহাসচিব আমির হোসেন ভূঁইয়া, ইকবাল হোসেন তাপস ও মো. বেলাল হোসেন; সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হেলাল উদ্দিন, মো. হুমায়ুন খান ও মোবারক হোসেন তোতা; সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সুলতান মাহমুদ, আহাদ ইউ চৌধুরী শাহীন, ডা. মোস্তাফিজুর রহমান আকাশ, গোলাম মোস্তফা, ইছারুহুল্লাহ আসিফ, ডা. সেলিমা খান, মাহমুদ আলম ও জাকির হোসেন মৃধা; সদস্য জি এম বাবু, সোলায়মান সামি ও রিনা তুলি; এবং ছাত্রসমাজ নেতা অর্ণব ও আল আমিন সরকারসহ অন্যরা।

এদিকে, শনিবার বাদ আছর জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কাকরাইল মিলনায়তনে জাতীয় পার্টি মহানগর দক্ষিণ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। জাতীয় পার্টি মহানগর দক্ষিণ সভাপতি ও পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাপা চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button