বিনোদন

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

সেই ১৬ বছর থেকেই শুরু হয় স্ট্রাগল, যা চলছে এখনও। দেখতে দেখতেই ২৫টি বছর পেরিয়ে গেছে। কিন্তু এখনও অনেক কিছু পাওয়ার বাকি আছে। কথা গুলো রানির, বলিউডের রানি মুখার্জীর। আজ (২১ মার্চ) ৪৩ বছর পূর্ণ করলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। সেইসাথে সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে ২৫ বছর পুর্ণ করলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

১৯৯৬ সালে ‘বিয়ের ফুল’ ছবির মধ্য দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে অভিষেক হওয়া এই অভিনেত্রীর যাত্রা এখনও অব্যাহত। তার কথায়, ‘১৬ বছর থেকে এখনও থামেনি। সেই স্ট্রাগল এখনও চলছে। এখনও অনেক কিছু পাওয়ার বাকি আছে। যত আলাদা আলাদা পরিচালকের সঙ্গে কাজ করি তত নতুন কিছু শিখতে পারি। আমি আশা করছি গত ২৫ বছরের মতো আগামী ২৫ বছরও যেন এভাবেই ফ্যানদের ভালবাসা আমি পাই।’

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

বিজ্ঞাপন

রানী মুখার্জীর জন্ম ১৯৭৮ সালের ২১ মার্চ। পিতা রাম মুখার্জী ছিলেন পরিচালক। এবং মা কৃষ্ণা মুখার্জী চলচ্চিত্রে গান গাইতেন। মুখার্জি-সমর্থ পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও, যেখানে তার বাবা এবং আত্মীয়রা ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পের সদস্য ছিলেন; সেখানে তিনি জীবিকা হিসেবে চলচ্চিত্রকে বেছে নেয়ার বিষয়ে উচ্চাভিলাষী ছিলেন না। যদিও ছেলেবেলায় ১৯৯৬ সালে বাবার পরিচালিত বাংলা ভাষায় ‘বিয়ের ফুল’ চলচ্চিত্রে সহ-চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু রানির। পরবর্তীতে তার মায়ের অনুরোধে ১৯৯৭ সালে ‘রাজা কি আয়েগি বারাত’ চলচ্চিত্রে মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেন।

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

বিজ্ঞাপন

১৯৯৮ সালে তার দুটি ছবি ‘গুলাম’ ও ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ ব্যবসাসফল হয়। শেষের ছবিটির জন্য তিনি প্রথমবারের মতো শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পান। যদিও, এর পরবর্তি তিন বছর তার অনেক ছবিই ব্যবসাসফল হয়নি। তবে, ২০০২ সালে ‘সাথিয়া’ ছবিতে তার অভিনয় সমালোচক ও সাধারণ দর্শকদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করে। এরপর, ২০০৪ সালে ‘হাম তুম’ ও ‘যুবা’ ছবির অভিনয় তাকে ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী পুরস্কার ও ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ সহ-অভিনেত্রী পুরস্কার পাইয়ে দেয়। এছাড়াও, শাহরুখ ও প্রীতি জিনতার সাথে ‘বীর-জারা’ ছবিতে তার অভিনয় ব্যাপক প্রশংসা লাভ করে। ২০০৫ সালে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে রানির ‘বান্টি অউর বাবলি’ ছবিটিও ব্যবসাসফল হয় এবং অমিতাভের সঙ্গে ‘ব্ল্যাক’ ছবিতে তার অভিনয় প্রশংসিত হয়।

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

বিজ্ঞাপন

 

বর্তামানে রানির হাতে রয়েছে একগুচ্ছ কাজ। ২০০৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারহিট ছবি ‘বান্টি অউর বাবলি’ রিমেকে অভিনয় করছেন তিনি। ছবিতে দেখা যাবে সাইফ আলী খানকেও। সেই সাথে এবারের এই জন্মদিনেই রানি ঘোষণা কলেন তার নতুন ছবি ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’। ছবিটি পরিচালনা করছেন অসিমা ছিব্বর। নতুন এই ছবি প্রসঙ্গে রানি জানিয়েছেন, ‘জন্মদিনে এর থেকে ভালো উপহার আর কিছু হতেই পারেনা। এই ছবির স্ক্রিপ্ট পড়েই উতলা হয়ে উঠেছিলাম। অপেক্ষায় ছিলাম কবে শুটিং শেষ করব। সেই সময় এসে গিয়েছে। আমি তো দারুণ এক্সাইটেড!’

বিজ্ঞাপন

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’ ছবির গল্প একেবারেই রানিকে নিয়ে তৈরি হয়েছে। এক মায়ের, এক দেশের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গল্পই ফুটে উঠবে এই ছবিতে। রানী জানালেন, ‘এরকম গল্প আগে কোনদিনও দেখেনি বলিউড। তাই এই ছবির চিত্রনাট্য পড়ে নিজেকে আটকাতে পারিনি। একবার শুনেই হ্যাঁ করে দিয়েছি।’ রানি আরও বললেন, ‘বলিউডে আমার প্রথম ছবি রাজা কি আয়েগি বারাত, সেটাও ছিল নারী কেন্দ্রিক। ২৫ বছর পর ফের নারী কেন্দ্রিক গল্প। এটা আমার কাছে সবচেয়ে বড় পাওয়া।’ জানা গিয়েছে, খুব শীঘ্রই শুরু হবে ছবির শুটিং। মুম্বাই ছাড়াও, এই ছবির শুটিং হবে নরওয়েতে।

সেই ষোড়শীর বলিউডে পেরিয়েছে পঁচিশ বছর

২০১৪ সালে বলিউডের নামী পরিচালক-প্রযোজক আদিত্য চোপড়াকে বিয়ে করেন রানী। ২০১৫-তে কন্যা আদিরার জন্ম দেন রানি। এরপর ২০১৮-এ ‘হিচকি’ ছবি দিয়ে বড়পর্দায় কাম ব্যাক করেন রানি। সুখী সংসার, সন্তান সামলে রানিকে দেখা গিয়েছিল ‘মর্দানি ২’-তেও। বহুদিন পর আবার রানি ফিরছেন, একেবারে নিজের অবতারে।

সারাবাংলা/এএসজি


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button