খেলা

নেপালে বাংলাদেশের শুভসূচনা

স্পোর্টস ডেস্ক

নেপালে তিন জাতি ফুটবল টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের সূচনাটা দারুণই হলো। আত্মঘাতি গোলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কিরগিজস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। কিরগিজস্তানের ডিফেন্ডার কুমারবাজ আত্মঘাতি গোলটি করেছেন ম্যাচের ৩০ মিনিটে।

বিজ্ঞাপন

এই জয়ে টুর্নামেন্টের ফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। জামাল-জিকোদের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচ আগামী ২৯ মার্চ, প্রতিপক্ষ স্বাগতিক নেপাল জাতীয় দল।

শুরুর একাদশে আজ ছিলেন না নিয়মিত অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। তার অনুপস্থিতিতে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড ওঠে মিডফিল্ডার সোহেল রানার হাতে। সোহেলের নেতৃত্বে তিন নতুন- ফরোয়ার্ড মেহেদী হাসান রয়েল, ডিফেন্ডার রিমন হোসেন ও হাবিবুর রহমান সোহাগকে নিয়ে একাদশ সাজান কোচ জেমি ডে। আক্রমণের দায়িত্বে ছিলেন মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিন ও রয়েল। পুরো ম্যাচেই প্রতিপক্ষের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে খেলেছে বাংলাদেশ।

বিজ্ঞাপন

১৮ মিনিটে ভালো একটা সুযোগ পেয়েছিলেন মতিন মিয়া। কিন্তু সুবিধাজনক স্থানে বল পেলেও ভারসাম্য ধরে রাখতে না পারা মতিন শট নিতে পারেননি। একটু পর প্রতিপক্ষের এক ফুটবলারের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির আবেদন করে বাংলাদেশ। রেফারি তাতে সাড়া দেয়নি। ৩০ মিনিটে প্রতিপক্ষের ভুলে গোল পায় বাংলাদেশ।

ডান দিকে থেকে আক্রমণে উঠা সাদ উদ্দিনের ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন কিরগিজস্তানের ডিফেন্ডার কুমারবাজ। পরের মিনিটে গোলরক্ষক জিকোর দারুণ সেভ বাঁচিয়েছে বাংলাদেশকে। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৫ মিনিটে এক সঙ্গে তিনটি পরিবর্তন আনেন বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে। মাশুক মিয়া জনি, বিপলু আহমেদ ও সোহাগের বদলি হিসেবে নামান জামাল, রাকিব হোসেন ও রিয়াদুল ইসলাম রাফিকে। ৬৪ মিনিটে রয়েলকে তুলে নামার মানিক হোসেন মোল্লাকে। জেমির এই পরিবর্তন কাজে লেগেছে। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ বাড়ে বাংলাদেশের। জামাল মাঝমাঠে সুবিধা করতে দেননি প্রতিপক্ষকে। গোলবারের নিচে জিকো ছিলেন দুর্দান্ত।

বিজ্ঞাপন

যোগ করা সময়ে গোল পেলেও পেতে পারত গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠা কিরগিজস্তান। কর্ণার কিকে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার কামোলিদিনের হেড একটুর জন্য বারের ওপর দিয়ে উড়ে যায়। যাতে শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বাংলাদেশ।

সারাবাংলা/এসএইচএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button