স্বাস্থ্য

ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৫২ লাখ ৬৩ হাজার ২৪৮, নিবন্ধন ছাড়িয়েছে ৬৬ লাখ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশে জাতীয়ভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগের ৪১তম দিনে ৫৮ হাজার ৪২৪ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানীতে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৬ হাজার ৮৩৭ জন। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত ৪১ দিনে মোট ভ্যাকসিন নিলেন ৫২ লাখ ৬৩ হাজার ২৪৮ জন। এর মধ্যে কেবল রাজধানী ঢাকায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৮ লাখ ২৭ হাজার ৯১২ জন। আর ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহীদের নিবন্ধন সংখ্যা পেরিয়ে গেছে ৬৬ লাখ।

বিজ্ঞাপন

রোববার (২৮ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রোববার বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সারাদেশে নিবন্ধিত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৬ লাখ ৯৩ হাজার ৫০৭ জনে।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় পর্যায়ে ভ্যাকসিন প্রয়োগের ৪১তম দিন, অর্থাৎ ২৮ মার্চের তথ্য বলছে, এদিন রাজধানী ঢাকায় ৪ হাজার ২৫৪ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৫৮২ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৪১ দিনে ঢাকায় যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ৫ লাখ ৩১ হাজার ৩৮ জন, নারী ২ লাখ ৯৬ হাজার ৮৭৪ জন।

এদিন রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ৩৩ হাজার ১৯৮ জন পুরুষ ও ২৫ হাজার ২২৬ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। সব মিলিয়ে এদিন সারাদেশে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৫৮ হাজার ৪২৪ জন।

বিজ্ঞাপন

এই সংখ্যাসহ ২৭ জানুয়ারি থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত দেশে মোট ৩২ লাখ ৭৭ হাজার ৫৯৭ জন পুরুষ ও ১৯ লাখ ৮৫ হাজার ৬৫১ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, ভ্যাকসিন প্রয়োগ পরবর্তী সময়ে কয়েকজনের হালকা জ্বর, গায়ে ব্যথার মতো কিছু লক্ষণ দেখা গেলেও এখন পর্যন্ত সবাই সুস্থ আছেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত ২৭ জানুয়ারি দেশে প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ওই দিন মোট ২৬ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।

পরদিন ২৮ জানুয়ারি রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে ভ্যাকসিন দেওয়া হয় ৫৪১ জনকে। এই ৫৬৭ জনকে ১০ দিন পর্যবেক্ষণের পর ৭ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচি শুরু হয়। ওই দিন ৩১ হাজার ১৬০ জন ভ্যাকসিন নেন।

বিজ্ঞাপন

ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইট ভিজিট করে নিবন্ধন করতে হবে আগ্রহীদের। জাতীয় পরিচয়পত্র ও একটি মোবাইল নম্বর থাকলেই ‘সুরক্ষা’ প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধন করা যাবে। নিবন্ধনের পর ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে রাখতে হবে। পরে নির্ধারিত মোবাইল নম্বরে এসএমএস করে ভ্যাকসিন নেওয়ার তারিখ জানানো হবে। ওই তারিখে ভ্যাকসিন কার্ড নিয়ে নির্ধারিত কেন্দ্রে গেলেই দেওয়া হবে ভ্যাকসিন। একইসঙ্গে দ্বিতীয় ডোজের তারিখও জানিয়ে দেওয়া হবে।

সারাবাংলা/এসবি/এমআই


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button