রাজনীতি

নিরীহ মানুষকে হত্যার জবাবদিহি সরকারকে করতে হবে: ফখরুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নিরীহ মানুষকে হত্যার জন্য এই সরকারকে জবাবদিহি করতে হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২৯ মার্চ) সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই সরকার স্বাধীনতার ৫০ বছরের দিনে সাধারণ মানুষের রক্ত ঝরিয়েছে। এই সরকার সাধারণ মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষা ধূলিসাৎ করে দিয়েছে। গত তিন দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ঢাকা ও চট্টগ্রামে কিভাবে মানুষের প্রাণ গিয়েছে, সেটাও আপনারা দেখেছেন। তার জন্য এই সরকার দায়ী।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, জনগণের কাছে এই সরকারকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। এই সরকারকে কৈফিয়ত দিতে হবে।

সরকার সুপরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বাকশাল প্রতিষ্ঠিত করে চলেছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, গত কয়েকদিন ধরে লক্ষ্য করছি এই সরকার তার পেটোয়া বাহিনী দিয়ে নিরীহ মানুষের ওপর অত্যাচার করে চলেছে। অসংখ্য মানুষকে হত্যা করেছে, গ্রেফতার করেছে। বিএনপির অনেক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, আমরা পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই, এভাবে একটি দেশ চলতে পারে না। আজকে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে নিজেদের পেটোয়া বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলেছে। তাই এই সরকারকে অবশ্যই সরে যেতে হবে।

ভারতের সঙ্গে দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকারের সঙ্গে ভারতের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। আমরাও চাই প্রতিবেশির সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকুক। কিন্তু সীমান্তে হত্যা বন্ধ হয়নি। পৃথিবীর কোনো দেশে এটা আছে বলে আমার জানা নেই। এমনকি বর্ডার ক্রস করার জন্য মানুষকে গুলি করে মারা হয় সেটাও আমার জানা নেই। এজন্য অবশ্যই তাদের বিচার হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এই সরকার আজকে ভারতের কাছ থেকে ন্যায্য অধিকার আদায় করে দিতে পারছে না। এই সরকার আমাদের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে বা আদায় করতে পারবে না।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসজে/এএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button