বিনোদন

ফিল্মফেয়ারে এবারও জয়ার জোড়া মনোনয়ন

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

ভারতের অস্কার বলা হয় ‘ফিল্মফেয়ার পুরস্কার’-কে। ২০১৮ সালে ‘শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী’ হিসেবে জনপ্রিয় ও সমালোচক দুই ক্যাটাগরিতেই ‘বিসর্জন’-এর জন্য মনোনয়ন পেয়েছিলেন জয়া আহসান। সেবার জনপ্রিয় ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেন জয়া।

বিজ্ঞাপন

ঘোষিত ২০১৯-এর পুরস্কারের মনোনয়ন। বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রে বিভাগে এবারও ‘শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী’ হিসেবে জোড়া মনোনয়ন পেয়েছেন জয়া। তবে এবার শুধু সমালোচক ক্যাটাগরিতে।

এবার আলাদা দুটি ছবির জন্য তিনি মনোনয়ন পেয়েছেন- ‘বিজয়া’ ও ‘রবিবার’। আগামী ৩১ মার্চ পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

এক নজরে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার ২০১৯-এর বাংলা ভাষা বিভাগে মনোনয়নপ্রাপ্তদের তালিকাঃ

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র

বিজ্ঞাপন

গুমনামি

কণ্ঠ

বিজ্ঞাপন

মিতিন মাসী

পরিণীতা

বিজ্ঞাপন

সাঁঝবাতি

ভিঞ্চি দা

 

শ্রেষ্ঠ পরিচালক

অরিন্দম শীল (মিতিন মাসী)

কৌশিক গাঙ্গুলি (জ্যেষ্ঠপুত্র)

লিনা গঙ্গোপাধ্যায় ও শৈবাল ব্যানার্জী (সাঁঝবাতি)

নন্দিতা রায় এবং শিবপ্রসাদ মুখার্জী (কণ্ঠ)

রাজ চক্রবর্তী (পরীণিতা)

সৃজিত মুখার্জী (গুমনামি)

 

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র (সমালোচক)

ঘরে বাইরে আজ (অপর্ণা সেন)

কেদারা (ইন্দ্রদীপ দাসগুপ্ত)

নগরকীর্তন (কৌশিক গাঙ্গুলী)

রবিবার (অতনু ঘোষ)

রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত (প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য)

 

প্রধান চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পুরুষ)

আবির চ্যাটার্জী (শাহ্‌ জাহান রিজেন্সী)

দেব (সাঁঝবাতি)

পরমব্রত চ্যাটার্জী (শাহ্‌ জাহান রিজেন্সী)

প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি (গুমনামী)

রুদ্রনীল ঘোষ (ভিঞ্চি দা)

শিবপ্রসাদ মুখার্জী (কণ্ঠ)

 

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (সমালোচক)

যিশু সেনগুপ্ত (মহালয়া)

কৌশিক গাঙ্গুলী (কেদারা)

প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী (রবিবার)

রিদ্দি সেন (নগরকীর্তন)

ঋত্বিক চক্রবর্তী (রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত)

 

প্রধান চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (নারী)

কোয়েল মল্লিক (মিতিন মাসী)

পাওলি দাম (কণ্ঠ)

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (আহা রে)

শুভশ্রী গাঙ্গুলী (পরিণীতা)

স্বস্তিকা মুখার্জী (শাহ্‌ জাহান রিজেন্সী)

 

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (সমালোচক)

ইশা সাহা (সুয়েটার)

জয়া আহসান (রবিবার)

জয়া আহসান (বিজয়া)

রাইমা সেন (তারিখ)

সোহিনি সরকার (ভিঞ্চি দা)

শুভশ্রী গাঙ্গুলী (পরীণিতা)

 

পার্শ্বচরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পুরুষ)

অর্নিবাণ ভট্টাচার্য (গুমনামী)

যিশু সেনগুপ্ত (ঘরে বাইরে আজ)

পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় (আহা রে)

রাহুল ব্যানার্জী (রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত)

ঋত্বিক চক্রবর্তী (জ্যেষ্ঠপুত্র)

রুদ্রনীল ঘোষ (কেদারা)

 

পার্শ্বচরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (নারী)

অপরাজিতা ঘোষ দাস (রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত)

দামিনি বসু (জ্যেষ্ঠপুত্র)

লিলি চক্রবর্তী (সাঁঝবাতি)

সৌরসেনী মৈত্র (ফাইনালি ভালোবাসা)

স্বস্তিকা মুখার্জী (কিয়া অ্যান্ড কসমস)

 

শ্রেষ্ঠ মিউজিক অ্যালবাম

অনির্বাণ দাস ও তন্ময় সরকার (রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত)

অনুপম রায়, প্রসেন এবং অনিন্দিয়া চ্যাটার্জী (কণ্ঠ)

অর্ক (পরীণিতা)

প্রবুদ্ধ ব্যানার্জী (নগরকীর্তন)

রণজয় ভট্টাচার্য এবং অনিন্দিয়া চ্যাটার্জী (সুয়েটার)

 

শ্রেষ্ঠ গীতিকবিতা

অনির্বাণ দাস- আমার ভুল হয়ে গিয়েছে প্রিয় (রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত)

অঞ্জন দত্ত- ছিলে বন্ধু (ফাইনালি ভালোবাসা)

অর্ক- প্রাণ দিতে চাই (পরীণিতা)

দীপাংশু আচার্য- কিচ্ছু চাইনি আমি (শাহ্‌ জাহান রিজেন্সী)

কৌশিক গাঙ্গুলী- তোমার পাশের দেশ (বিজয়া)

রণজয় ভট্টাচার্য- প্রেমে পরা বারণ (সুয়েটার)

 

শ্রেষ্ঠ প্লেব্যাক গায়ক (পুরুষ)

অর্নিবাণ ভট্টাচার্য- কিচ্ছু চাইনি আমি (শাহ্‌ জাহান রিজেন্সী)

অনুপম রায়- আলোতে আলোতে ঢাকা (কণ্ঠ)

অরিজিত সিং- মা (গর্ত)

নীল দত্ত- ছিলে বন্ধু (ফাইনালি ভালোবাসা)

রুপঙ্কর বাগচী- তোমায় মনে পড়েছিল (রবিবার)

তিমির বিশ্বাস- আমার ভুল হয়ে গেছে প্রিয় (রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত)

 

শ্রেষ্ঠ প্লেব্যাক গায়ক (নারী)

অদিত মুন্সী- শ্রীকৃষ্ণ কীর্তন (গর্ত)

লঘ্নজিতা চক্রবর্তী- প্রেমে পড়া বারণ (পরীণিতা)

শ্রেয়া ঘোষাল- নীল দিগন্তে (গর্ত)

সোমলতা আচার্য চৌধুরী- আজ বেহেশতে কে যাবি (আহা রে)

সারাবাংলা/এজেডএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button