খেলা

জাতীয় দলের নতুন স্পন্সর দারাজ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নতুন স্পন্সর হিসেবে যাত্রা শুরু করল দারাজ। ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় পুরুষ ও নারী ক্রিকেট দল, ‘এ’ দল ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে পৃষ্ঠপোষকতা করবে দেশের জনপ্রিয় এই অনলাইন শপিং সাইটটি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে নতুন অংশিদারিত্বের ফলে উল্লেখিত দলের প্লেয়ারদেরে কিটে দারাজের লোগো দৃশ্যমান থাকবে।

বিজ্ঞাপন

একই সঙ্গে দারাজের সিস্টার কনসার্ন হাঙরিনাকি দলের কিট স্পন্সর হিসেবে ঘোষিত হয়েছে। বিসিবি ও দারাজের মধ্যকার এই চুক্তি ৭ এপ্রিল ২০২১ থেকে কার্যকর হয়ে চলবে ২০২৩ সালের ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত।

বুধবার (৭ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ‘অতি অল্প সময়ের মধ্যেই দারাজ বাংলাদেশের অন্যতম নেতৃস্থানীয় ব্যবসায়িক অনলাইন সাইট হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে দারাজ যেভাবে মানুষের ঘরে ঘরে সেবা পৌঁছে দিয়েছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। আন্তর্জাতিক সুনামসমৃদ্ধ এমন একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশিদারিত্ব গড়তে পেরে বিসিবি সত্যিই উদ্বেলিত। আশা করি বাংলাদেশের সাফল্যের যে অভিন্ন উদ্দেশ্য নিয়ে আমরা কাজ করব তা আমাদের মধ্যকার সম্পর্ককে আরও মজবুত করবে।’

এদিকে দারাজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘এটা আমাদের জন্য অভূতপূর্ব এক মুহূর্ত যে আমরা বাংলাদেশের জন্য কিছু করতে পারছি। জাতীয় দলের পৃষ্ঠপোষক হতে পেরে আমরা দেশের মানুষের গৌরবের অংশ হতে পেরেছি বলেও মনে করছি।’

বিজ্ঞাপন

২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকেই ক্রিকেট দলের স্থায়ী কোনো পৃষ্ঠপোষক ছিল না। করোনার কারণে সিরিজ বাই সিরিজ চুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছিল বিসিবি। দীর্ঘমেয়াদে পৃষ্ঠপোষক খোঁজার প্রক্রিয়ায় পাওয়া গেল ই-কমার্স ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান দারাজকে।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button