সারাদেশ

৯ দিনে ভারত থেকে ফিরলেন ১৫৮০ যাত্রী, ১৮ জন করোনা পজিটিভ

লোকাল করেসপন্ডেন্ট

বেনাপোল: ভারতে শনাক্ত হওয়া নতুন ধরনের করোনাভাইরাস যেন কোনোভাবে বাংলাদেশে ছড়াতে না পারে সেজন্য স্থলপথে পাসপোর্টধারী যাত্রী যাতায়াত ১৪ দিন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে আটকে পড়া বাংলাদেশি যাত্রীরা দূতাবাসের বিশেষ অনুমতি নিয়ে দেশে ফিরছেন।

বিজ্ঞাপন

বিশেষ অনুমতি নিয়ে গত ৯ দিনে ভারত থেকে ফেরা ১৫৮০ বাংলাদেশিদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত রয়েছেন ১৮ জন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি যাত্রীরা বিভিন্ন হোটেলে ১৪ দিনের আইসোলেশন রয়েছেন। এই সময়ে বাংলাদেশ থেকে ১৪৭ জন ভারতীয় যাত্রী ফিরে গেছেন ।

মঙ্গলবার (৫ মে) সকালে এসব বিষয় নিশ্চিত করে বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, বাংলাদেশ সরকার ভারতের করোনার নতুন ভেরিয়েন্ট সংক্রমণ রোধে ২৬ এপ্রিল থেকে দুই সপ্তাহের জন্য ভারত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এতে ভারতে আটকা পড়ে কয়েক হাজার বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রী। সেসব যাত্রীদের নিজ দেশে ফিরতে হলে কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশি উপ-হাইকমিশন থেকে এনওসি নিয়ে ও ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আরটিপিসিআর ল্যাবের করোনা টেস্টের সনদ নিয়ে দেশে ফেরার নির্দেশনা দেন বাংলাদেশ সরকার। সেই মোতাবেক গত ৯ দিনে ১ হাজার ৫৮০ জন বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রী দেশে ফিরেছেন এবং বাংলাদেশে আটকা পড়া ১৪৭ জন ভারতীয় পাসপোর্ট যাত্রী দেশে ফিরে গেছেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও জানান, বেনাপোল ও যশোরের আবাসিক হোটেলের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে জায়গা না থাকায় এখন থেকে খুলনার প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে তাদের রাখা হচ্ছে । যেসব যাত্রী করোনায় আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে দেশে ফিরছেন তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে করোনা ইউনিটে পাঠানো হচ্ছে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা.আবু তাহের জানান, যেসব যাত্রীরা দেশে ফিরছেন তাদের বাধ্যতামূলক বেনাপোলের সব আবাসিক হোটেল, ঝিকরগাছার গাজিরদরগা এতিমখানা, যশোরের বিভিন্ন হোটেল এবং খুলনায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসএ


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button