রাজধানী

স্বামী মুসলমান হওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

স্টাফ রিপোর্টার

ঢাকা: রাজধানীর সবুজবাগ বাসাবো এলাকার একটি বাসায় সোমা রানী (৩৫) নামের এক গৃহবধূ বিষপানে ‘আত্মহত্যা’ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে বাসাবোর ছায়াবিথী এলাকার একটি বাসায় এ ঘটনা ঘটে। মুমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক রাত দুইটার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান জানান, মৃত সোমার বাড়ি সাভারের বাকোর্তা এলাকায়। গত ২০০৭ সালে মানিক কুমার দাসের সঙ্গে বিয়ে হয়। ১০ বছরের এক মেয়ে আছে তাদের ঘরে। মানিকের বাড়ি রাজবাড়ি জেলায়। বর্তমানে সবুজবাগ বাসাবো ছায়াবিথী এলাকায় থাকতো।

বিজ্ঞাপন

এসআই আরও জানান, গত তিন মাস আগে মানিক স্ত্রীকে না জানিয়ে মুসলমান হন। গত ১৪ এপ্রিল অফিসিয়ালভাবে মুসলমান হন। এই বিষয় মেনে নিতে পারেননি সোমা রানী। বর্তমানে মানিকের নাম আমান খান। তিনি একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন।

জানা গেছে, মুসলমান হওয়ার কারণে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরেই গত রাতে সোমা বিষাক্ত কোনো কিছু পান করেন। পরে স্বামী নিজেই তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

বিজ্ঞাপন

তার স্বামী মানিকের বক্তব্য, সোমাকে না জানিয়েই গত তিন মাস আগে মুসলমান হই। ১৪ এপ্রিল অফিসিয়ালভাবে মুসলমান হই। বিষয়টা নিয়ে মাঝে মাঝেই ঝগড়া লাগতো স্ত্রীর সাথে। গত রাতেও এ বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয় সোমার সাথে। এরপর সে বিষাক্ত কোন কিছু পান করে। পরে হাসপাতালে নিয়ে আসলে মারা যায়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসআর/এএম


Source link

আরো সংবাদ

Back to top button